ইয়েমেনের বিরুদ্ধে হামলায় অংশ নিলে ইতালিকে পরিণাম ভুগতে হবে: হুতি নেতা

ফেব্রুয়ারি মাঝামাঝিতে লোহিত সাগরে চলাচলকারী জাহাজকে রক্ষা করতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘রেড সি নেভাল মিশন’ শুরু হতে চলেছে।

রয়টার্স
Published : 5 Feb 2024, 10:17 AM
Updated : 5 Feb 2024, 10:17 AM

ইতালি যদি যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে ইয়েমেনের বিরুদ্ধে চলমান হামলায় অংশ নেয় তবে দেশটি হুতি বিদ্রোহীদের আক্রমণের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন দলটির অন্যতম শীর্ষ নেতা মোহামেদ আলি আল-হুতি।

ইতালির একটি দৈনিক পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন বলে জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সোমবার পত্রিকাটিতে ওই সাক্ষাৎকার প্রকাশ পায়।

ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে গাজায় ইসরায়েলের অভিযান বন্ধের দাবি জানিয়েছে। নতুবা তারা লোহিত সাগরের শিপিং রুটে বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা অব্যাহত রাখবে বলেও হুমকি দিয়েছে। বলেছে, গাজা যুদ্ধ অবসানের মাধ্যমেই কেবল ওই অঞ্চলে শান্তি পুনঃপ্রতিষ্ঠা হতে পারে।

এদিকে, হুতি বিদ্রোহীদের হামলার প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্য গত শনিবার ইয়েমেন জুড়ে ১৩টি এলাকায় হুতিদের অন্তত ৩৬টি লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালায়। রোববারও যে হামলা অব্যাহত ছিল।

Also Read: এবার ইয়েমেনে হুতি লক্ষ্যবস্তুতে যুক্তরাষ্ট্রের হামলা

ইতালি গত শুক্রবার বলেছে, তারা লোহিত সাগরে চলাচলকারী জাহাজগুলোকে রক্ষা করতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘রেড সি নেভাল মিশন’ এ ‘দ্য অ্যাডমিরাল ইন কমান্ড’ প্রদান করবে।

মাঝ ফেব্রুয়ারি থেকে লোহিত সাগরে ইইউর এই অভিযান শুরু হবে। ওই অভিযানের লক্ষ্য হলো, লোহিত সাগরের শিপিং রুটে চলাচল করা বাণিজ্যিক জাহাজগুলোকে সব ধরণের আক্রমণ থেকে রক্ষা করা এবং সেগুলোর দিকে ছুটে আসা ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন আগে-ভাগেই ধ্বংস করা। তবে তারা হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে কোনো আক্রমণে অংশ নেবে না বলে জানিয়েছেন ইইউর বৈদেশিক নীতি বিষয়ক প্রধান জোসেপ বোরেল।