রাশিয়ার নির্বাচনে পুতিনকে চ্যালেঞ্জ জানানো বরিস নাদেজদিনের প্রার্থিতা বাতিল

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের ইউক্রেইন যুদ্ধের সমালোচনা করে আসছেন নাদেজদিন। আর এ সময়ে রাশিয়ায় ভিন্নমত সহ্য করা হয় না বললেই চলে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Feb 2024, 03:00 PM
Updated : 8 Feb 2024, 03:00 PM

রাশিয়ায় আগামী মাসের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভ্লাদিমির পুতিনকে চ্যালেঞ্জ জানানো যুদ্ধবিরোধী প্রার্থী বরিস নাদেজদিনের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন।

পুতিনের ইউক্রেইন যুদ্ধের সমালোচনা করে আসছেন নাদেজদিন। আর যুদ্ধের এই সময়ে রাশিয়ায় ভিন্নমত সহ্য করা হয় না বললেই চলে।

নাদেজদিন ১৫ শতাংশের বেশি মানুষের সই নিয়ে নির্বাচনে তার প্রার্থিতার আবেদন জমা দেন। তবে নির্বাচন কর্তৃপক্ষ এ আবেদন ত্রুটিপূর্ণ দাবি করে তা বাতিল করেছে।

নাদেজদিন এর বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানানোর চেষ্টা নিলেও কমিশন তা প্রত্যখ্যান করেছে। তবে হাল ছাড়তে নারাজ ৬০ বছর বয়সী নাদেজদিন।

স্যোশাল মিডিয়ায় তিনি বলেছেন, তিনি নির্বাচন কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রাশিয়ার সুপ্রিম কোর্টে যাবেন।

দেশটির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন বলেছে, নাদেজদিন যে ১০৫,০০০ জনের সই জমা দিয়েছেন তাদের ৯,০০০ জনেরও বেশি মানুষ নিষ্ক্রিয় এবং নানারকম নিয়ম লঙ্ঘনের কথা তারা উল্লেখ করেছে।

তাতে ৯৫, ৫৮৭ জনের নাম বাদ পড়েছে। তার মানে নাদেজদিনের একজন প্রার্থী হিসাবে নাম নিবন্ধন করাতে প্রয়োজনীয় ১ লাখ সইয়ের চেয়ে কিছু সই কম পড়েছে বলে জানান কমিশনের সদস্য আন্দ্রেই সুতোভ।

নাদেজদিন কমিশনকে বলছেন, “লাখো মানুষ আমাকেই ভোট দিতে চলেছে। সব জরিপে আমি প্রেসিডেন্ট পুতিনের পরের অবস্থানে আছি।”

ওদিকে, কমিশনের চেয়ারপারসন এল্লা পামফিলোভার উদ্ধৃতি দিয়ে রাশিয়ার তাস বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, “সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে গেছে। নাদেজদিন চাইলে তিনি আদালতে যেতে পারেন।”

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হতে চলেছে ১৫-১৭ মার্চে। এ নির্বাচনে যে প্রেসিডেন্ট পুতিনই জয়ী হবেন তাতে কোনও সন্দেহ নেই। তারপরও নির্বাচনে কে কে দাঁড়াতে পারবে সে ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে শনিবার।

তবে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারপারসন বলছেন, ব্যালটে চার প্রার্থী থাকবেন সেটি এরই মধ্যে স্পষ্ট হয়ে গেছে।