চিলিতে দাবানলে নিহত ৫১

বনে ছড়িয়ে পড়া এই দাবানল এখন শহরাঞ্চলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে।

রয়টার্স
Published : 4 Feb 2024, 03:58 AM
Updated : 4 Feb 2024, 03:58 AM

চিলির মধ্যাঞ্চলে ভয়াবহ দাবানলে অন্তত ৫১ জন নিহত হয়েছে। যে সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে শনিবার জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বনে ছড়িয়ে পড়া এই দাবানল এখন শহরাঞ্চলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। অগ্নিনির্বাপক বাহিনী এবং জরুরি পরিষেবাকর্মীরা আগুন ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে প্রাণপণ কাজ করে যাচ্ছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে হেলিকপ্টার এবং ট্রাক ব্যবহার করা হচ্ছে।

দাবানলের নানা ছবি ও ভিডিওতে দেখা যায়, ভালপারাইসো অঞ্চলের অনেক এলাকায় আকাশ কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে গেছে।

দাবানলে পর্যটক প্রিয় উপকূলীয় নগরী ভিনা দেল মার এর আশেপাশের এলাকা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খুব বেশি ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি এলাকায় জরুরি উদ্ধারকর্মীরা পৌঁছাতে পারছে না বলে জানিয়েছে চিলি কর্তৃপক্ষ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যারোলিনা তোহা বলেন, “সড়কে কয়েকটি মৃতদেহ পড়ে পাওয়া গেছে। যে তথ্য আমরা হাতে পেয়েছি তাতে নিহতের সংখ্যা আরো অনেক বড় হতে চলার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

“সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ভালপারাইসোর। ২০১০ সালের ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর ওই অঞ্চলটি সবচেয়ে বড় দুর্যোগ মোকাবেলা করছে। ভূমিকম্পে সেবার সেখানে প্রায় ৫০০ মানুষ নিহত হয়।”

শনিবার টেলিভিশনে এ ভাষণে প্রেসিডেন্ট গ্যাব্রিয়েল বোরিক বলেন, “পরিস্থিতি খুবই গুরুতর।”

চিলিতে মাঝে মধ্যেই দাবানল দেখা যায়। বিশেষ করে গ্রীষ্মের রেকর্ড উচ্চ তাপমাত্রার মধ্যে। গত বছরও দেশটিতে দাবানলে চার লাখ হেক্টরের বেশি ভূমি পুড়ে যায়, প্রাণ হারায় ২৭ জন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তোহা বলেন, “আজ (শনিবার) যতটুকু এলাকায় দাবানল জ্বলছে তা গত বছরের তুলনায় অনেক কম। কিন্তু আগুন এবার অনেক দ্রুত ছড়াচ্ছে। শুক্রবার থেকে শনিবারের মধ্যে আগুন ৩০ হাজার হেক্টর থেকে ৪৩ হাজার হেক্টরে ছড়িয়ে পড়েছে। আর সবথেকে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে কোথাও কোথাও আগুন শহরের খুব কাছে জ্বলছে এবং ছড়িয়ে পড়ছে। ”