আইফোনে যেভাবে দ্রুত স্ক্যান, স্বাক্ষর ও ডকুমেন্ট পাঠাবেন

ডাক্তার দেখানোর জন্য ফর্ম পূরণ, দলিলে স্বাক্ষর অথবা কোনো চুক্তি পাঠানোর মতো সকল কাজই করতে পারে ‘অ্যাপল নোটস’ অ্যাপ, যা আগে থেকে ইনস্টল করা থাকে আইফোন ও আইপ্যাড ডিভাইসে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 August 2022, 11:33 AM
Updated : 17 August 2022, 11:33 AM

ডকুমেন্ট স্ক্যান বা স্বাক্ষর করতে ভারি আকারের মেশিনের কোনো প্রয়োজন নেই কারণ মাত্র এক মিনিটেরও কম সময়ে নিজস্ব আইফোন বা আইপ্যাডের মাধ্যমে সহজেই একটি ডকুমেন্ট স্ক্যান করার পর সেটিকে পিডিএফ ফাইলে রূপান্তর করে ফাইলটি সহজেই যে কোনো জায়গায় পাঠাতে পারেন ব্যবহারকারী।

মার্কিন প্রকাশনা সিএনবিসি’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, ডাক্তার দেখানোর জন্য ফর্ম পূরণ, দলিল স্বাক্ষর অথবা কোনো চুক্তি পাঠানোর মতো সকল কাজই করতে পারে ‘অ্যাপল নোটস’ অ্যাপ, যা আগে থেকে ইনস্টল করা থাকে আইফোন ও আইপ্যাড ডিভাইসে।

‘স্ক্যান’ ফাংশনটি ব্যবহার করলে ব্যবহারকারীর ডকুমেন্ট কেবল একটি কাগজের টুকরোর ছবি নয় বরং আসল স্ক্যানের মতোই দেখাবে। এরইসঙ্গে ব্যবহারকারী চাইলে ডকুমেন্ট সাদা-কালো করার পাশাপাশি ডকুমেন্টে ‘ই-সাইন ও একাধিক পেইজকে একত্র করে একটি পিডিএফ ফাইলে আনতে পারে অ্যাপটি।

আইফোন বা আইপ্যাডে কীভাবে ডকুমেন্ট স্ক্যান করবেন?

স্ক্যান করার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে একটি বিপরীত রংয়ের ব্যাকগ্রাউন্ডে ডকুমেন্ট রাখা কারণ এতে সহজেই ডকুমেন্ট ও ব্যাকগ্রাউন্ডের মধ্যকার পার্থক্য যাচাই করতে পারবে ব্যবহারকারীর আইফোন বা আইপ্যাড।

উদাহরণ হিসেবে, কাগজটি যদি সাদা রংয়ের হয় তাহলে এটি গাঢ় রংয়ের কাঠের টেবিলের ওপর স্ক্যান করতে পারেন।

  • নোটস অ্যাপে প্রবেশ করুন এবং নতুন নোট তৈরি করতে ডানপাশের নীচ অংশে থাকা ‘পেন-অ্যান্ড-পেপার’ আইকনে ক্লিক করুন।

  • ‘ক্যামেরা’ আইকনে চাপ দিন এবং ‘স্ক্যান ডকুমেন্টস’ বাটনে ক্লিক করুন।

  • আপনার আইফোন বা আইপ্যাড ক্যামেরা লেন্স বরাবর ডকুমেন্টটি রাখুন। পরপরই আপনার ডকুমেন্ট পরিসীমায় কমলা রংয়ে হাইলাইট করা একটি বাক্স আসবে ও স্বয়ংক্রিয়ভাবেই এটি স্ক্যান হবে। ‘শাটার’ অথবা ‘ভলিউম’ বাটনের যে কোনো একটিতে চাপ দিয়েও ছবি তুলতে পারেন ব্যবহারকারী, যদি তার ডকুমেন্ট তখনই স্ক্যান করার প্রয়োজনীয়তা না থাকে।

  • ডকুমেন্টের আকার না দেখা গেলে স্ক্যানিং বক্সের প্রতিটি কোনায় ক্লিক বা ড্র্যাগ করতে হবে, যার মাধ্যমে ব্যাকগ্রাউন্ড নয় কেবল ডকুমেন্টেরই ছবি তুলবে অ্যাপটি।

  • আপনি যদি একাধিক পিডিএফ স্ক্যান করেন, তাহলে একটি পেইজের পর অন্য পেইজ স্ক্যান করে একাধিক পিডিএফ ফাইলকে একটি ফাইলে আনতে পারবেন।

  • স্ক্যানটি সম্পন্ন হলে ‘সেইভ’ বাটন চাপুন।

আইফোন বা আইপ্যাড স্ক্যান কীভাবে এডিট করবেন?

স্ক্যান এডিট করার মাধ্যমে ফাইল ‘রিনেইম’, পিডিএফ হিসেবে ‘এক্সপোর্ট’ ও ‘প্রিন্ট’ সহ আরও অনেক কাজ করতে পারবেন ব্যবহারকারী।

  • ডকুমেন্ট রিনেইম করতে: স্ক্যানের ওপর থাকা ফাইলের নাম চাপুন।

  • পেইজ যোগ করতে: একবার ডকুমেন্ট সেইভ হয়ে গেলে ছবির নীচে একটি অপশন আসবে, যা আপনাকে বামপাশের নীচ অংশে থাকা একটি ‘প্লাস’ আইকনে ক্লিক করার মাধ্যমে ফাইলে পেইজ যোগ করতে দেবে।

  • ক্রপ করতে: ‘ক্রপ’ আইকনে ক্লিকের মাধ্যমেই আপনি একটি ডকুমেন্ট ক্রপ করতে পারবেন, যা দেখতে একটি বর্গক্ষেত্রের মতো।

  • ডকুমেন্ট ওরিয়েন্টেশন সামঞ্জস্য করতে: স্ক্রিনের ডানপাশের নীচের কোনায় থাকা ‘রোটেশন’ আইকন বাছাই করবেন।

  • ডকুমেন্ট পাঠাতে: স্ক্যান বাটনের ডানপাশের ওপর থাকা ‘এক্সপোর্ট’ বাটনে ক্লিক করলে ‘প্রিন্ট’, ‘মার্ক আপ’, ‘কপি’, ‘শেয়ার’ ও ‘সেইভ’ নামে কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন।

পিডিএফ স্বাক্ষর করতে: ‘মার্ক আপ’ অপশনে গিয়ে নীচের ডানপাশে থাকা ‘+’ বাটনে চাপ দিয়ে ‘সিগনেচার’ অপশনে ক্লিক করবেন। এখানে আপনি আগে থেকে সেইভ করা স্বাক্ষর অথবা নতুন একটি স্বাক্ষর বানাতে পারেন। স্বাক্ষরের আকার পরিবর্তনযোগ্য এবং ডকুমেন্টের যে কোনো জায়গায় আপনি এটি বসাতে পারবেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক