শাস্তি এড়াতে হ্যাকিংয়ের ঘটনা চেপে যাওয়ার দায় স্বীকার উবারের

কোম্পানির নেতৃত্ব বড় পরিবর্তন এলে ব্যবসায়ের নৈতিক সততা এবং আইনের প্রতি অনুবর্তিতা নিয়ে নতুন নেতৃত্ব কঠোর হওয়ার পরই হ্যাকিংয়ের ঘটনা সম্পর্কে এফটিসিকে জানিয়েছিল উবার।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 July 2022, 10:23 AM
Updated : 24 July 2022, 10:23 AM

শাস্তি এড়াতে ২০১৬ সালের হ্যাকিংয়ের ঘটনা চেপে যাওয়ার অভিযোগ আদালতে স্বীকার করেছে রাইড-হেইলিং প্ল্যাটফর্ম উবার। ওই ঘটনায় বেহাত হয়েছিল পাঁচ কোটি ৭০ লাখ চালক ও আরোহীর স্পর্শকাতর তথ্য।

রয়টার্স জানিয়েছে, তথ্য গোপনের অভিযোগে অপরাধী হিসেবে বিচার এবং সম্ভাব্য শাস্তির ঝুঁকি এড়াতেই মার্কিন আইনজীবীদের সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছেছে উবার।

সমঝোতার অংশ হিসেবে কোম্পানিটি সরকারপক্ষের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে, ২০১৬ সালের হ্যাকিংয়ের ঘটনা স্থানীয় বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘ফেডারেল ট্রেড কমিশন’ (এফটিসি)-কে জানাতে ব্যর্থ হয়েছিল এর কর্মীরা। ওই সময়ে কোম্পানির ডেটা নিরাপত্তা ব্যবস্থার কার্যকারিতা তদন্ত করছিল সংস্থাটি।

স্যান ফ্রান্সিসকোর আদালতে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারপক্ষের আইনজীবী স্টেফানি হাইন্ডস বলেন, হ্যাকিংয়ের ঘটনা প্রকাশের আগে এক বছর সময়ক্ষেপণ করেছে উবার। কোম্পানির নেতৃত্ব বড় পরিবর্তন আসার পর এবং ব্যবসায়ের নৈতিক সততা এবং আইনের প্রতি অনুবর্তিতা নিয়ে নতুন নেতৃত্ব কঠোর হওয়ার পরই উবার হ্যাকিংয়ের ঘটনা সম্পর্কে এফটিসিকে অবহিত করেছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।

হাইন্ডসের মতে, বাজার নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষকে তদন্তে সহযোগিতা করতে এবং স্বচ্ছতা বজায় রাখতে কোম্পানির নতুন ব্যবস্থাপনার উদ্যোগের প্রতিফলন রয়েছে অভিযোগপত্রে উবারকে অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত না করার সিদ্ধান্তে।

২০১৮ সালেই এফটিসিকে আগামী ২০ বছরের জন্য একটি সামগ্রিক গোপনতা প্রকল্প চালু রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে উবার। সাবেক নিরাপত্তা প্রধান জোসেফ সালিভানের বিরুদ্ধে মামলা পরিচালনাতেও সহযোগিতা করছে কোম্পানিটি। হ্যাকিংয়ের ঘটনা চেপে যেতে মূল ভূমিকা রাখার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এ প্রসঙ্গে উবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেও তাৎক্ষণিক কোনো উত্তর পায়নি রয়টার্স।

সালিভানের বিরুদ্ধে প্রাথমিক অভিযোগ আনা হয়েছে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। বাদীপক্ষের অভিযোগ, হ্যাকারদের এক লাখ ডলার সমমূল্যের বিটকয়েন দিয়েছিলেন সালিভান; ওই হ্যাকাররা যেন হ্যাকিংয়ের বিষয়ে মুখ না খোলে সে জন্য তাদের দিয়ে একটি চুক্তিতেও স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

রয়টার্স জানিয়েছে, নিজস্ব প্ল্যাটফর্মের নিরাপত্তা ব্যবস্থার ত্রুটি চিহ্নিত করার বদলে নিরাপত্তা গবেষকদের জন্য পুরস্কারের ব্যবস্থা রাখলেও ডেটা চুরির ঘটনা চেপে যেতে যাওয়ার বদলে আর্থিক সুবিধা দেওয়ার কোনো ব্যবস্থা রাখেনি।

হ্যাকিংয়ের ঘটনা কর্তৃপক্ষকে জানাতে দেরি করার ঘটনায় ওয়াশিংটন ডিসিসহ যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের পক্ষ থেকে তোলা অভিযোগ নিস্পত্তি করতে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ১৪ কোটি ৮০ লাখ ডলার জরিমানা দিয়েছিল উবার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক