৭০ কোটি টাকা তুলতে মিডল্যান্ড ব্যাংককে অনুমোদন

এটিসহ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকের সংখ্যা হবে ৩৪টি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Sept 2022, 03:53 PM
Updated : 21 Sept 2022, 03:53 PM

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের মাধ্যমে (আইপিও) পুঁজিবাজার থেকে ৭০ কোটি টাকা সংগ্রহে তালিকাভুক্ত হতে অনুমোদন পেয়েছে বেসরকারি খাতের চতুর্থ প্রজন্মের মিডল্যান্ড ব্যাংক।

এটি তালিকাভুক্ত হলে পুঁজিবাজারে ব্যাংকের সংখ্যা হবে ৩৪টি।

বুধবার পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

অভিহিত মূল্য (ফেস ভ্যালু) ১০ টাকা দরে সাত কোটি শেয়ার ইস্যু করে ৭০ কোটি সংগ্রহ করবে ব্যাংকটি। সংগৃহীত অর্থ সরকারি ও তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ এবং আইপিওর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার কাজে ব্যয় করা হবে।

মিডল্যান্ড ব্যাংকের সর্বশেষ নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২১ সাল শেষে পুর্নমুল্যায়ন ছাড়া শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য ছিল ১৩ টাকা।

এসময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯০ পয়সা। গত ৫ বছরের ভারিত গড় হারে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ওয়েটেড অ্যাভারেজ ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৭ পয়সা।

পুঁজিবাজারে কোম্পানির তালিকাভুক্তিতে প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী দুটি শর্ত পূরণ করতে হবে মিডল্যান্ড ব্যাংককে।

প্রথমটি হচ্ছে, তালিকাভুক্তির আগে মিডল্যান্ড ব্যাংকের প্রত্যেক পরিচালকের আলাদাভাবে মোট শেয়ারের ২ শতাংশের (আইপিও পরবর্তী শেয়ারের) মালিকানা থাকতে হবে। আর সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ (আইপিও পরবর্তী শেয়ারের) শেয়ার ধারণ করতে হবে।

দ্বিতীয়টি হচ্ছে, তালিকাভুক্তির আগে বিএসইসির করপোরেট গভর্নেন্স গাইডলাইন অনুসারে স্বাধীন পরিচালক নিয়োগের শর্ত পরিপালন করতে হবে।

চতুর্থ প্রজন্মের মিডল্যান্ড বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে ২০১৩ সালের জুন মাসে। এর আগে চূড়ান্ত অনুমোদন পায় একই বছরের এপ্রিলে।

৪০০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধনের এ ব্যাংকের বর্তমান চেয়ারম্যান সাবেক সংসদ সদস্য নিলুফার জাফরুল্লাহ।

বিএসইসি জানিয়েছে, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনা করবে লংকাবাংলা ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

আইপিওতে ইস্যু করা শেয়ারের মধ্যে যোগ্য বিনিয়োগকারীদের জন্য (ইআই) ৩০ শতাংশ, মিউচুয়াল ফান্ড ও সমন্বিত বিনিয়োগ স্কিম ১০ শতাংশ, সাধারণ বিনিয়োগকারী ৫০ শতাংশ এবং অনিবাসী বাংলাদেশীদের জন্য ১০ শতাংশ শেয়ার বরাদ্দের নিয়ম রয়েছে।

আইপিও প্রক্রিয়ায় ব্যাংকটি কর্মীদের মধ্যে ৩৫ লাখ সাধারণ শেয়ার ইস্যু করবে। এসব শেয়ার ২ বছরের জন্য লক ইন থাকবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক