অভিজ্ঞ কোস্টা রিকার সামনে তরুণ স্পেন

স্কোয়াডের গড় বয়সের হিসাবে কাতার বিশ্বকাপের তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ দল স্পেন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 01:00 PM
Updated : 21 Nov 2022, 01:00 PM

বিশ্বকাপের স্পেন দলে নেই বড় কোনো তারকা। তবে প্রতিভার কমতি নেই। এক ঝাঁক তরুণে ঠাসা লুইস এনরিকের দল। যাদের বেশিরভাগই প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলার অপেক্ষায়। সাবেক চ্যাম্পিয়নদের নতুন এই প্রজন্মের প্রথম পরীক্ষাটা হতে যাচ্ছে এমন এক দলের সঙ্গে, যাদের অভিজ্ঞতার ঝুলি বেশ সমৃদ্ধ- কোস্টা রিকা।

আল থুমামা স্টেডিয়ামে আগামী বুধবার নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি। ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত দশটায়।

২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা আসরে ভিসেন্তে দেল বস্কের কোচিংয়ে নিজেদের একমাত্র বিশ্বকাপ জিতেছিল স্পেন। সেই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে কাতার আসরে আছেন শুধু অধিনায়ক সের্হিও বুসকেতস। এনরিকের দলে এখন তারুণ্যের জয়গান।

গত দুটি বিশ্বকাপ স্পেনের জন্য ছিল ব্যর্থতার গল্প। ২০১৪ ব্রাজিল আসরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয় তারা। চার বছর পর রাশিয়া বিশ্বকাপে শেষ ষোলোয় স্বাগতিকদের বিপক্ষে টাইব্রেকারে হেরে যায় দলটি।

তবে গত তিন বছরে এনরিকের হাত ধরে অনেকটাই বদলে গেছে স্পেনের চেহারা। তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে দল পুনর্গঠন করেছেন রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার সাবেক এই ফরোয়ার্ড।

এই দলের তরুণ মুখ হিসেবে আছেন বার্সেলোনার দুই মিডফিল্ডার ১৯ বছর বয়সী পেদ্রি, ১৮ বছর বয়সী গাভি এবং দুই ফরোয়ার্ড ২০ বছর বয়সী আনসু ফাতি, ২২ বছর বয়সী ফেররান তরেস।

এনরিকের হাত ধরে গত বছরের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনালে উঠেছিল স্পেন। যেখানে ইতালির কাছে টাইব্রেকারে হারে তারা। উয়েফা নেশন্স লিগের গত আসরে তারা হয় রানার্সআপ।

বিশ্বকাপে তাদের ২৬ সদস্যের দলে ২৫ বা এর কম বয়সী খেলোয়াড় আছে ১৪ জন। স্কোয়াডের গড় বয়সের হিসাবে আসরের ৩২ দলের মধ্যে যা তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ।  

তরেসও স্বীকার করে নিলেন, অনেকের চেয়ে পিছিয়ে থাকবেন তারা। টুর্নামেন্টে শক্ত অবস্থানে থেকে নিজেদের প্রমাণ করার কিছুও দেখেন না তিনি।

“আমরা খুব তরুণ একটি দল, (অভিজ্ঞতায়) আমাদের চেয়ে এগিয়ে আছে অনেক দল।”

“কোনো একটা নির্দিষ্ট ধাপে গিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করতে হবে, এমন বাধ্যবাধকতা আমাদের নেই। ভালো ফলাফল পেতে আমরা কেবল আমাদের সেরাটা খেলব এবং এগিয়ে যাব। যদি আমরা ভালো ফলাফল না পাই, তবু মাথা উঁচু করে বিদায় নেব এবং আমাদের কাজ চালিয়ে যাব। আমরা তরুণ দল।”

সেই তুলনায় কোস্টা রিকা দলের চিত্র ঠিক বিপরীত। এই নিয়ে ষষ্ঠবার বিশ্বকাপে খেলছে তারা। ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলা ছয় জন আছেন এবারের দলে। যাদের সবার বয়স এখন ৩০ বা এর বেশি। স্ট্রাইকার ব্রায়ান রুইসের বয়স এখন ৩৭।

এই রুইসের একমাত্র গোলেই ব্রাজিল আসরে ইতালিকে হারিয়ে অঘটনের জন্ম দিয়েছিল কোস্টা রিকা। স্মরণীয় সেই জয়ে মৃত্যুকূপ হয়ে ওঠা গ্রুপে তিন সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে (ইতালি, ইংল্যান্ড, উরুগুয়ে) রেখে সবার আগে শেষ ষোলোয় উঠেছিল তারা। সেবার দলটি খেলেছিল কোয়ার্টার-ফাইনালে, যা এখনও পর্যন্ত তাদের সেরা সাফল্য।

কলম্বিয়ান কোচ লুইস ফের্নান্দো সুয়ারেসের কোস্টা রিকা দলের রক্ষণ বেশ শক্ত। বাছাইপর্বে তারা গোল হজম করে মাত্র আটটি। পাল্টা আক্রমণে ওঠার সামর্থ্যও তাদের ভালো। স্পেনের ৩৩ বছর বয়সী ডিফেন্ডার সেসার আসপিলিকুয়েতার জন্য যা হুমকি হতে পারে।

২০১৪ আসরে দুর্দান্ত গোলকিপিং করে সবার নজর কেড়েছিলেন কোস্টা রিকার গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। ৩৫ বছর বয়সী এই গোলরক্ষককে নিয়ে এবার কিছুটা দুর্ভাবনার জায়গাও আছে। পিএসজিতে ইতালিয়ান গোলরক্ষক জানলুইজি দোন্নারুম্মার কাছে জায়গা হারানোর পর গত পাঁচ মাসে ক্লাবের হয়ে কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ তিনি খেলেননি। বিশ্ব মঞ্চে তার সামনে তাই বড় চ্যালেঞ্জ।

এই গ্রুপের অন্য দুই দল চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি ও এশিয়ার দেশ জাপান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক