ইউনাইটেড দলে র‌্যাশফোর্ডের অনুপস্থিতি নিয়ে ধোঁয়াশা

গণমাধ্যমের খবর, ক্লাবের অগোচরে বুধবার রাতে বাইরে ছিলেন এবং নাইটক্লাবে সময় কাটিয়ে ছিলেন মার্কাশ র‌্যাশফোর্ড।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Jan 2024, 10:58 AM
Updated : 29 Jan 2024, 10:58 AM

অঁতনি মার্শিয়াল চোট পেয়ে ছিটকে পড়ায় এমনিতেই স্ট্রাইকার সঙ্কটে পড়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। মার্কাস র‌্যাশফোর্ডের মতো অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড সেই শূন্যতা পূরনে অনেকটা সক্ষম হলেও, সবশেষ ম্যাচে তাকেও বাইরে রাখেন কোচ এরিক টেন হাগ। এর পেছনের কারণ হিসেবে তিনি বললেন, ‘অভ্যন্তরীন ব্যাপার।’

এফএ কাপের চতুর্থ রাউন্ডে রোববার প্রথম ১৫ মিনিটের মধ্যে ব্রুনো ফের্নান্দেস ও কোবি মাইনোর গোলে এগিয়ে গিয়েও খুব একটা স্বস্তিতে থাকতে পারেনি ইউনাইটেড। বিরতির আগে-পরে মরিস ও উইল ইভান্সের দুই গোলে সমতায় ফেরে ওয়েলস ফুটবলের তৃতীয় স্তরের দল নিউপোর্ট কাউন্টি।

শেষ পর্যন্ত অবশ্য প্রত্যাশিত জয় ঠিকই পায় ইউনাইটেড। আন্তোনির গোলে ফের এগিয়ে যাওয়ার পর যোগ করা সময়ে গাসমুস হয়লুনের লক্ষ্যভেদে ৪-২ ব্যবধানে জয় নিয়ে ফেরে তারা।

মৌসুমের শুরু থেকেই পারফরম্যান্সের অধারাবাহিকতায় ভুগছে প্রিমিয়ার লিগের সফলতম ক্লাবটি। তবে এদিন র‌্যাশফোর্ডের অনুপস্থিতি নিয়েই চলছে বেশি আলোচনা; স্কোয়াডেই যে ছিলেন না তিনি।

ম্যাচের আগে ইউনাইটেডের বিবৃতিতে ছোট করে জানানো হয়, “ধকল কাটিয়ে উঠছেন তিনি (র‌্যাশফোর্ড), অনুশীলনের জন্য ক্যারিংটনে আছেন।”

কোচ টেন হাগ বিষয়টি একটু বিস্তারিত বললেন, তবে খোলাসা করলেন না।

“সে জানিয়েছে যে, সে অসুস্থ এবং বাকিটা অভ্যন্তরীণ বাপার। যেমনটা আমি বলেছি, বিষয়টা আমি দেখব।”

ইএসপিএন তাদের প্রতিবেদনে লিখেছে, বৃহস্পতিবার নির্ধারিত সূচির ব্যস্ততা থাকার পরও বুধবার রাতে বেলফাস্টের একটি নাইট ক্লাবে গিয়েছিলেন র‌্যাশফোর্ড। ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষও বিষয়টি জানতে পারে। কয়েকটি গণমাধ্যমে খবর এসেছে বৃহস্পতিবার রাতেও বাইরে ছিলেন এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড। 

পরে শুক্রবার জানা যায় তিনি অসুস্থ বোধ করছেন, আর একারণেই নিউপোর্টে দলের সঙ্গে যেতে পারেননি। অবশ্য ক্যারিংটনে অনুশীলন ঠিকই করেন র‌্যাশফোর্ড।

গত মৌসুমে ইউনাইটেডের সেরা পারফর্মার ছিলেন র‌্যাশফোর্ড। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দলটির হয়ে করেছিলেন ৩০ গোল। গত মৌসুমে তার সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তিও করে ক্লাব।

কিন্তু এই মৌসুমে ভুগতে দেখা যাচ্ছে ২৬ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে; সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৬ ম্যাচ খেলে কেবল চারটি গোল করেছেন তিনি।