‘রেয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে লড়াই করতে পারে কেবল বিশ্বের চার-পাঁচটি ক্লাব’

শিরোপা লড়াইয়ের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বিধ্বস্ত হওয়ার পর রেয়াল মাদ্রিদের শ্রেষ্ঠত্বই মেনে নিলেন জিরোনা কোচ মিচেল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Feb 2024, 06:36 AM
Updated : 11 Feb 2024, 06:36 AM

অপেক্ষা ছিল আগুনে এক লড়াইয়ের। শিরোপার লড়াইয়ে মূল দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর দ্বৈরথ বলে কথা। কিন্তু বারুদ দেখা গেল কেবল রেয়াল মাদ্রিদের পারফরম্যান্সে। তাদের সামনে স্রেফ মিইয়ে থাকল জিরোনা। ম্যাচের পর প্রতিপক্ষের শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েই জিরোনা কোচ মিচেল সানচেস মুনিয়স বললেন, তার দল রেয়ালের সমপর্যায়ের নয়।

স্পেনের ফুটবলে কখনোই খুব বড় শক্তি ছিল না জিরোনা। শীর্ষ লিগে তারা খেলছে এবার নিয়ে মাত্র চতুর্থবার। দুইবার তারা লিগ শেষ করে দশে থেকে, আরেকবার ছিল আঠারোয়। গত মৌসুমে দশম স্থানে থাকা দলটিই এবার একের পর এক চমক উপহার দিয়ে এক পর্যায়ে উঠে যায় পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে।

পরে যদিও তাদেরকে টপকে শীর্ষে উঠে যায় রেয়াল। তবে শনিবার তাদের সামনে সুযোগ ছিল রেয়ালকে আবার পেছনে ফেলে দেওয়ার। লা লিগার শিরোপা লড়াইয়ে গুরুত্বপূর্ণ এক ম্যাচও ছিল এটি। সেখানেই রেয়াল স্রেফ এক তরফা খেলে ৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেয় জিরোনাকে।

ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে মিচেল বললেন, এমন ফর্মে থাকা রেয়ালের সামনে তাদের করার কিছুই ছিল না।

“আমরা চেষ্টা করেছি তাদের সামনে দাঁড়াতে। তবে মাদ্রিদ যখন নিজেদের সেরা ছন্দে থাকে, তখন তাদের সামনে দাঁড়ানো যায় না। আমার ছেলেরা নিজেদের সবটুকু উজাড় করে দিয়েছে। কিন্তু মুখোমুখি দ্বৈরথগুলোয় তারা ছিল শ্রেয়তর। ওদের সবাই দারুণ খেলেছে, কামাভিঙ্গা, ভিনিসিউস, বেলিংহ্যাম… আমরা ওই পর্যায়ের নই।”

স্পেনর প্রতিষ্ঠিত ফুটবল শক্তিগুলোর তুলনায় যে জিরোনা অনেকটা পিছিয়ে, সেটিও অকপটেই তুলে ধরলেন কোচ।

“আমরা এমন ক্লাব, যারা কেবল গড়ে ওঠার চেষ্টা করছি। গোটা বিশ্বের কেবল চারটি বা পাঁচটি ক্লাব হয়তো আছে, যারা রেয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে লড়াই করতে পারে। তারা যখন এরকম ছন্দে থাকে এবং আজকের মতো খেলে, তখন তাদেরকে আটকানো কঠিন।”

“ভালেন্সিয়া,রেয়াল বেতিস, এরা আমাদের পর্যায়ের দল। আমরা রেয়াল মাদ্রিদের পর্যায়ের নই। বার্সেলোনার কাছ থেকে পয়েন্ট আদায় করেছি আমরা। কিন্তু আমরা তাদের পর্যায়ের দল নই। আতলেতিকো মাদ্রিদের পর্যায়ের দল নই। আমরা সেই নম্রতা বজায় রেখেই পরিশ্রম করে যাই।”

এই জয়ের পর ২৪ ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রেয়াল। সমান ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে জিরোনা। এক ম্যাচ কম খেলে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে বার্সেলোনা। ২৩ ম্যাচে আতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৪৮।

শেষ পর্যন্ত রেয়াল মাদ্রিদই এবারের লা লিগা জিতে নেবে বলে ধারণা মিচেলের। জিরোনা কোচ আগেও বলেছিলেন, লিগ শিরোপার স্বপ্ন তারা দেখছেন না। তাদের আশা বরং প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা। এই হারের পরও সেই কথাই বললেন তিনি।

“ফুটবল খেলায় যে কোনো কিছুই হতে পারে। তবে আজকে আমার মনে হয়েছে, মাদ্রিদ খুবই শক্তিশালী এবং তারা যদি এই মান ধরে রাখতে পারে, তাহলে পয়েন্ট হারাবে না। আজকের ম্যাচে কোনো সময়ই মনে হয়নি যে, আমরা জিততে পারি।”

“আমরা রেয়াল মাদ্রিদের পর্যায়ের নই। আমরা স্বপ্নের ভেতর ছিলাম এবং এখনও স্বপ্নেই আছি। আমার মনে হয়, ইউরোপে খেলার মতো জায়গায় আছি আমরা।”