বরিশাল দেখল ‘ক্যাট শো’

“এত বিড়াল একসাথে কখনও দেখিনি, সব বেশ মায়াবী ছিল,” বললেন এক দর্শনার্থী।

বরিশাল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 06:51 PM
Updated : 11 Nov 2022, 06:51 PM

আদুরে প্রাণীগুলো সেজেগুঁজে কোলে চড়ে এলো, অনুষ্ঠানের মধ্যমণি হয়ে প্রতিযোগিতা করে খেলো; হলো র‌্যাম্প শো। দক্ষিণের নগরী বরিশাল প্রথমবারের মতো দেখল ‘ক্যাট শো’।

শুক্রবার সন্ধ্যার পর নগরীর বাধ রোডের একটি কনভেনশন হলে এ আয়োজন করে ফেইসবুকভিত্তিক গ্রুপ ‘ক্যাট/পারসিয়ান ক্যাট সোসাইটি অব বরিশাল’।

এতে দেশি-বিদেশি ৫০টি বিড়াল অংশ নেয়, তাদের নিয়ে খেলা হয় ৭টি ক্যাটাগরিতে। নানা ধরনের প্রতিযোগিতা ছাড়াও এ আয়োজনে ছিল বিড়াল পালনে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দোকানও।

শেহতাজ রহমান নামের একজন বললেন, “সাত মাস ধরে পার্সিয়ান জাতের একটি বিড়াল পালন করছি। এতে আমার বেশ ভালোই লাগছে। রাস্তায় অনেকে বিড়াল দেখলে ইট ছুড়ে মারে বা নানাভাবে বিরক্ত করে।

“কিন্তু এটা করা ঠিক নয়, এরা অবলা প্রাণী। বিড়াল মালিকদের পাশাপাশি শোটিতে ছিলো দর্শনার্থীদেরও উপস্থিতি। তারাও এই ব্যতিক্রমী শো-তে উপস্থিত থাকতে পেরে বেজায় খুশি।

দর্শনার্থী তানজিলা আক্তার বললেন, “ব্যতিক্রমী এই শো আমার জীবনে প্রথম দেখা। এখানে অনেক বিড়ালকেই সাজগোছ করে নিয়ে আসা হয়েছে।” 

৫০টি বিড়ালকে দেখার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মাহাদ হোসেন নামের এক দর্শনার্থী বললেন, “এত বিড়াল একসাথে কখনোই দেখা হয়নি। সব বেশ মায়াবী ছিল।”

ক্যাট শোর বিচারক পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. দীবেন্দ্যু বিশ্বাস বলেন, “পোষা প্রাণীদের যত্নের কোনো বিকল্প নেই। তাছাড়া মানুষের মানসিক ও শারীরিক- দুই দিক থেকে স্বস্তি দরকার। সেখান থেকে বিড়াল যারা পছন্দ করে, তারা বিড়াল পালন করে মানসিক শান্তি পায়।”

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নুরুল আলম বলেন, “নাগরিক জীবনে আমরা হাঁপিয়ে উঠেছি বিভিন্ন যান্ত্রিক কারণে। সেই সময়ে জীবে প্রেমের নিদর্শন হিসেবে এই আয়োজন মানুষকে প্রাণীদের প্রতি আরও সদয় করবে।”

আয়োজক ফেইসবুক গ্রুপের এডমিন আবির বিন মিজান জানান, বরিশালে প্রথমবারের মতো আয়োজিত ক্যাট শোতে অংশগ্রহণকারী বিড়াল লালন-পালনকারীদের তুমুল উচ্ছ্বসিত দেখা গেছে। এখন থেকে প্রতিবছর এমন আয়োজন করা হবে।

২০১৯ সালে যাত্রা করা গ্রুপটিতে এখন সাড়ে ৪ হাজারের মতো সদস্য আছে বলে জানান তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক