মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবি: লাশ মিললো ৩ রোহিঙ্গা নারীর, জীবিত উদ্ধার ৪৫

টেকনাফ উপকূলের কাছে সাগরে ট্রলারডুবির এ ঘটনা ঘটে; জীবিত উদ্ধারদের মধ্যে বাংলাদেশি রয়েছে বলে জানিয়েছে কোস্টগার্ড।

কক্সবাজার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Oct 2022, 09:43 AM
Updated : 4 Oct 2022, 09:43 AM

অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নে ট্রলার ডুবির ঘটনায় তিন রোহিঙ্গা নারীর লাশ এবং জীবিত অবস্থায় চার বাংলাদেশিসহ ৪৫ জনকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের হরমুনিয়া পাড়া এলাকার উপকূলবর্তী গভীর সাগরে ট্রলার ডুবির এ ঘটনা ঘটে।

এরপর সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ৪৫ জনকে জীবিত উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড; তাদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী।

উদ্ধার হওয়া পুরুষদের মধ্যে ৪ জন বাংলাদেশি নাগরিক রয়েছে।

কোস্টগার্ডের টেকনাফের বাহারছড়া আউটপোস্ট স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন,

সমুদ্র পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করলে রোহিঙ্গাদের বহনকারী ট্রলারটি ডুবে যায়। ভোরে হরমুনিয়া পাড়ায় সাগর থেকে সাঁতরিয়ে কিছু রোহিঙ্গাকে উপকূলে আসতে দেখে স্থানীয়রা কোস্টগার্ডকে খবর দেয়।

Also Read: মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবি: সাগরে মিললো ৩ রোহিঙ্গা নারীর লাশ

Also Read: মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে টেকনাফে ট্রলার ডুবি, ৩৫ রোহিঙ্গা উদ্ধার

পরে কোস্টগার্ড সদস্যরা সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ৪৫ জনকে জীবিত উদ্ধার করে। এরপর বেলা পৌনে ১টার দিকে ওই ট্রলার ডুবির ঘটনায় ভেসে আসা তিন রোহিঙ্গা নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

জীবিত উদ্ধারদের মধ্যে ৮ জন নারী ও ৩৭ জন পুরুষ রয়েছে বলে জানালেও ট্রলারে মোট কতজন ছিলো তা নিশ্চিত করতে পারেননি এ কোস্টগার্ড কর্মকর্তা।

উদ্ধার রোহিঙ্গাদের বরাতে দেলোয়ার বলেন, “মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে গভীর সাগরে রোহিঙ্গাদের বহনকারী ট্রলারটি ডুবে যায়। এ সময় রোহিঙ্গারা সাগরে ভাসতে থাকে। মাছ ধরার ট্রলার ও নৌকার জেলেদের সহায়তা চেয়েও তারা পাননি।

“পরে জেলেদের ছুঁড়ে দেওয়া বয়া ও পানির জারের সহায়তায় সাঁতরিয়ে রোহিঙ্গারা কূল উঠে আসে। এখনো অনেকে সাগরে ভাসছে।"

আরও রোহিঙ্গা ভাসতে থাকায় প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে জানিয়ে দেলোয়ার বলেন, তাদের উদ্ধার তৎপরতা চলছে।

জীবিত উদ্ধার চার বাংলাদেশি দালাল কি-না এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “এটা হতে পারে, তাদের পরিচয় যাচাই করা হচ্ছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক