‘অন্তঃসত্ত্বা চাচিকে হত্যার পর ২৭ বছর পালিয়ে ছিলেন’

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার হুরবাড়ি এলাকার সাইফুলের হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন হয়।

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 July 2022, 03:39 PM
Updated : 31 July 2022, 03:39 PM

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় অন্তঃসত্ত্বা চাচিকে হত্যার ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

শনিবার গভীর রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে র‌্যাব-১৪ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

গ্রেপ্তার সাইফুল ইসলাম (৪৫) ফুলবাড়িয়া উপজেলার হুরবাড়ি এলাকার মিজান মিয়ার ছেলে।

রোববার র‌্যাব-১৪-এর কোম্পানি অধিনায়ক মেজর আখের মুহম্মদ জয় বলেন, হুরবাড়ী গ্রামের মো. আব্দুল আউয়াল বিয়ের পর থেকেই তার স্ত্রীকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করতেন। বিয়ের আনুমানিক দুই বছর পর অন্তঃসত্ত্বা হন তার স্ত্রী।

“১৯৯৪ সালের ১১ ডিসেম্বর রাতে যৌতুকের দাবিতে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে আব্দুল আউয়াল, তার দুই বোন শামছুন্নাহার, হাফেজা খাতুন এবং ভাতিজা সাইফুল মিলে পিটিয়ে হত্যা করেন। হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দিতে নিহতের মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালান তারা।”

অধিনায়ক আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে ফুলবাড়ীয়া থানায় হত্যা মামলা করেন। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে ২০০৪ সালের জানুয়ারিতে মামলার রায়ে সাইফুল যাবজ্জীবন সাজা পান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক