রমনা কালী মন্দিরে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ আওয়ামী লীগের

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির পক্ষ কালী মন্দিরে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 April 2024, 05:31 PM
Updated : 2 April 2024, 05:31 PM

ঢাকার রমনা কালী মন্দির ও আশপাশের এলাকার অসহায় দুস্থদের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির পক্ষ থেকে মঙ্গলবার দুপুরে কালী মন্দিরে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, "এই মন্দিরও অসম্প্রদায়িক চেতনার একটি কেন্দ্র। এই মন্দিরটি টার্গেট ছিল, (১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে) অপারেশন সার্চ লাইটের মধ্য দিয়ে প্রায় শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। যাদের আমরা হারিয়েছি, তাদের অনেকের পরিবারের সদস্যরা এখানে আছেন। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ১৯৭১ সালে আমাদের বিকশিত সন্তানদের নির্মমভাবে হত্যা করেছে, বিবেকবানদের নির্মূল করেছে।

"বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সেই বিবেকহীন হত্যাকারীদের নির্মূল করতে কাজ করে যাচ্ছি। এই রমনা কালিমন্দিরের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত ছিল, তাদের এবং তাদের দালালদের খুঁজে বের করতে হবে। অপকর্মের ইতিহাস মানুষের মাঝে তুলে ধরতে হবে।"

নাছিম বলেন, "মুক্তিযুদ্ধে রাজাকারদের তালিকা ধরে তাদের সন্তান, যারা এখন বিভিন্নভাবে সাম্প্রদায়িক শক্তির দালালি করছে, আইএসআইয়ের হয়ে কাজ করছে, সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়িয়ে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশে বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে চাচ্ছে, তাদের থেকে সব সময় সতর্ক থাকতে হবে। এবং বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমরা সকলে কাজ করে যাব– এই হোক আজকের অঙ্গীকার।"

আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, "পবিত্র রমজান মাসে এবং পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছি। ১৯৭১ সালে মন্দিরে হামলা হয়, এখানে এখনও শহীদ পরিবারের অনেকে আছেন।

"এছাড়া এই এলাকার গরিব দুঃখি মানুষের জন্য আমরা ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে এসেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কমিটি উপহার সামগ্রী বিতরণ করে আসছে। একমাত্র আওয়ামী লীগ ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে মানুষের পাশে দাঁড়ায়। সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।"

অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য নির্মল চ্যাটার্জি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি দিলীপ রায়, রমনা কালীমন্দিরের সভাপতি উৎপল সাহা অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।