নূপুর শর্মার বক্তব্য তুলে ধরা সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আরও ‘অভিযোগ’

চার বছর আগের একটি টুইটের জের ধরে গ্রেপ্তার ফ্যাক্ট-চেকিং সাইট অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কট্টর সমালোচক সাংবাদিক মোহাম্মদ জুবাইরের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ এনেছে দিল্লি পুলিশ।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 July 2022, 08:49 AM
Updated : 2 July 2022, 08:49 AM

দিল্লির পাতিয়ালা হাউস আদালতে তোলার সময় পুলিশ ষড়যন্ত্রমূলক অপরাধ ও তথ্যপ্রমাণ নষ্টের এ নতুন অভিযোগগুলোর কথা উল্লেখ করেছে। এসবের সঙ্গে জুবেইরের বিরুদ্ধে বিদেশি অনুদান নিয়ন্ত্রণ আইনের (এফসিআরএ) ৩৫ ধারার আওতায় নতুন অভিযোগও যুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

“এফসিআরএ’র ধারা ৩৫ এর পাশাপাশি অভিযোগপত্রে ষড়যন্ত্রমূলক অপরাধ ও তথ্যপ্রমাণ নষ্টের অভিযোগও যুক্ত হয়েছে,” পাতিয়ালা হাউস আদালতে শনিবার বলে দিল্লি পুলিশ।

ষড়যন্ত্রমূলক অপরাধের অভিযোগ যুক্ত হওয়ায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট কর্তৃপক্ষ এখন জুবেইরের বিরুদ্ধে মুদ্রাপাচারের অভিযোগ খতিয়ে দেখারও পদক্ষেপ নিতে পারবে। 

দিল্লি পুলিশ শনিবার জুবেইরকে আরও ১৪ দিন হেফাজতে রাখার আবেদন করেছে; আর অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতার আইনজীবী এ সাংবাদিকের জামিন চেয়েছেন।

জুবেইরের চার বছর আগে করা এক টুইটে ‘হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়া হয়েছে’ এই অভিযোগে সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করার পর আদালতে তোলা হয়, আদালত তাকে এক দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠায়।

পরে মঙ্গলবার আদালত তাকে আরও ৪দিন পুলিশি হেফাজতে রাখার আবেদন মঞ্জুর করে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার। সেই সময়সীমা শেষ হওয়ার পর শনিবার তার আইনজীবী জামিন আবেদন করেন।

জুবাইরকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে ভারতের বিরোধীদলগুলোর নেতা এবং সমাজকর্মীরা। তারা বলেছেন, সমাজে বিদ্বেষ ছড়ানো ব্যক্তিদের মুখোশ যারা খুলে দিচ্ছেন ভারতের হিন্দুত্ববাদী সরকার তাদের কঠোর হাতে দমন করতে চায়। জুবাইরের ঘটনা তার সুস্পষ্ট প্রমাণ।

সম্প্রতি ভারতে একটি টেলিভিশন বিতর্কে নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেন ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতা নূপুর শর্মা।

টুইটারে নূপুরের বক্তব্য গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেন জুবাইর। তার টুইট ব্যাপকভাবে শেয়ার হয়। নূপুর কাণ্ডের বিরুদ্ধে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে কয়েকটি মুসলিম দেশ। যার জেরে বিজেপি নূপুরকে দলীয় মুখপাত্রের পদ থেকে বরখাস্ত করে।

নূপুর কাণ্ডের পর হিন্দু জাতীয়তাবাদীরা জুবাইরের অতীতের টুইট সামনে নিয়ে আসে এবং দাবি করে, ওইসব টুইট তাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে। এজন্য তারা জুবাইরের বিচার দাবি করেছেন।

ভারতের সুপরিচিত সাংবাদিক মোহাম্মদ জুবাইর ২০১৭ সালে সাবেক প্রকৌশলী প্রতীক সিনহার সঙ্গে মিলে ফ্যাক্ট-চেকিং ওয়েবসাইট ‘অল্টনিউজ’ প্রতিষ্ঠা করেন। ভারতে ভুয়া খবর এবং ভুল তথ্যের খবরের বিরুদ্ধে নিরলসভাবে কাজ করে দ্রুতই সাধারণ মানুষের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে অল্টনিউজ।

টুইটারে জুবাইরের পাঁচ লাখের বেশি অনুসারী রয়েছে। তাই অল্টনিউজের কোনও খবর জুবাইর তার টুইটার একাউন্টে শেয়ার করলে দ্রুতই তা ভাইরাল হয়ে পড়ে।

বিদ্বেষ জড়ানো বক্তব্যের উপর বাজপাখির মত নজর রাখার জন্য তিনি পরিচিত। তার টুইটে বিজেপি সমর্থকরা তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে মন্তব্য করে আসছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক