ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে পারে লাচ্ছি

নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, লাচ্ছি ছাড়াও প্রতিদিনের খাবারে দই থাকলে টাইপ টু ডায়াবেটিস তৈরি হওয়ার ঝুঁকি কমে যেতে পারে।

লাইফস্টাইল ডেস্কআইএএনএস/বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Nov 2014, 12:27 PM
Updated : 30 Nov 2014, 06:54 PM

গবেষণার ফলাফলে দেখা যায়, প্রতিদিন এক সার্ভিং ২৮ গ্রাম দই খাওয়ার সঙ্গে টাইপ টু ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি ১৮ শতাংশ কমাতে সহযোগিতা করে।

যুক্তরাষ্ট্রের হাভার্ড স্কুল অফ পাবলিক হেল্থের অধ্যাপক এবং এই গবেষণার জ্যেষ্ঠ গবেষক ফ্র্যাঙ্ক হু বলেন, “আমরা দেখেছি যে, টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমানোর সহযোগী হিসেবে বেশি মাত্রায় দই গ্রহণের সম্পর্ক রয়েছে। যেখানে অন্যান্য দুগ্ধজাত খাবার এবং মোট দুধ গ্রহণও এই সাহায্য করে না।”

হু আরও জানান, এই আবিষ্কার ধারণা দেয় যে স্বাস্থকর খাদ্যাভ্যাসের অংশ হতে পারে দই।

যখন শরীর যথেষ্ট পরিমাণে ইন্সুলিন উৎপন্ন করতে পারে না বা শরীরের কোষ ইন্সুলিন প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে তখন দীর্ঘস্থায়ী রোগ হিসেবে টাইপ টু ডায়াবেটিস হয়।

দেখা গেছে, টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীর চর্বির প্রকার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মাত্রা উন্নত করতে পারে লাচ্ছিতে থাকা প্রোবায়োটিক ব্যাক্টেরিয়া। গবেষকরা পরামর্শ দেন, এই প্রক্রিয়া রোগের ঝুঁকি কমিয়ে অবস্থা উন্নত করতে পারে।

স্বাস্থ্যকর্মীদের চিকিৎসার ইতিহাস ও জীবনযাত্রার অভ্যেস নিয়ে তৈরি করা তিনটি একইরকম গবেষণার ফলাফল একত্র করে গবেষকরা এই কাজ করেন। গবেষণায় মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৯শ’ জনের তথ্য যুক্ত করা হয়।

এদের মধ্যে ১৫ হাজার ১শ’ ৫৬ জনের টাইপ টু ডায়াবেটিস ছিল।

খাবারের পাশাপাশি বয়স এবং বিএমআই’য়ের (বডি ম্যাস ইনডেক্স) সঙ্গে দীর্ঘস্থায়ী ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কারণ সমন্বয়ের সময় দেখা গেছে, দই গ্রহণের ফলে টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমে।  

মার্চ ২০১৩ সাল পর্যন্ত প্রকাশিত এই ধরনের অন্যান্য গবেষাণার ফলাফলের সঙ্গে এই গবেষণার ফলাফল একত্র করার মাধ্যমে গবেষকরা এই বিষয়ে নিশ্চিত হয়।  

এই গবেষণা বিএমসি মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক