ভাতের পানির উপকারিতা

ফেন বা ভাতের মাড় শরীরের জন্য উপকারী। এতে থাকা পুষ্টিগুণ শরীরে শক্তি যোগাতে সাহায্য করে।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 April 2020, 01:51 PM
Updated : 17 April 2020, 01:51 PM

এছাড়াও, ত্বকও চুল ভালো রাখতেও ভাতের পানি ব্যবহার করা যায়।

গ্রামাঞ্চলেকিংবা শহরেও নানী-দাদীদের মুখে হয়ত ভাতের মাড়ের ব্যবহার শুনে থাকবেন অনেকে।

গরম মাড়ের মধ্যেপরিমাণ মতো গোলমরিচের গুঁড়া, লেবুর রস, অল্প লবণ ও মাখন মিশিয়ে মজাদার সুপও তৈরি করাসম্ভব।

জীবনযাপন-বিষয়কএকটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ভাতের পানি বা মাড়ের নানান উপকারিতা সম্পর্কেজানানো হল।

শুষ্ক ত্বকের যত্ন: জাপানে হাজার বছর ধরেই ভাতের পানি রূপচর্চায়ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এতে থাকে সোডিয়াম লরল সালফেট যা ডিটারজেন্ট, শ্যাম্পু ও পরিষ্কারকেপাওয়া যায়। প্রতিদিন দুইবার ঠাণ্ডা ভাতের পানি দিয়ে মুখ ধোয়া হলে চমৎকার ফল পাওয়া যায়।এটা খুব ভালো টোনার হিসেবে কাজ করে। লোমকূপ টানটান করার পাশাপাশি বলিরেখা দূর করতেসহায়তা করে।

চুলের জন্য উপকারী: এতে আছে ভিটামিন এ, সি, ডি এবং ই যাচুলের হারিয়ে যাওয়া উজ্জ্বলতা ফেরাতে সাহায্য করে এবং চুলে বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। চুলেভাতের পানি ব্যবহার করে এক ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে চুলধুয়ে নিন।

শক্তিবর্ধক: ভাতের পানিতে থাকা কার্বোহাইড্রেইট শক্তিযোগাতে সাহায্য করে। শরীর খুব সহজেই এতে থাকা উপাদান শোষণ করে এবং তা শক্তিতে রূপান্তরকরে। তাৎক্ষণিক শক্তি যোগাতে এক গ্লাস ভাতের পানি চমৎকার কাজ করে।

শরীরে আরাম অনুভব: গোসলের সময় পানিতে খানিকটা ভাতের পানিমিশিয়ে নিন। এতে শরীরের দুর্বলভাব দূর হয়ে আরাম অনুভূত হবে।

ভাতের পানিব্যবহারে ত্বক সতেজ ও তরতাজা লাগে। পাঁচ মাস বয়সের উর্দ্ধে যে কোনো শিশুদের খাবারেশ্বেতসার যোগ করতে ভাতের পানি যোগ করতে পারেন।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক