অল্প দুশ্চিন্তা স্মৃতিশক্তির জন্য ভালো

সামান্য ব্যাপারেই অস্বস্তিতে পড়ে যান? আপনার জন্য আছে স্বস্তির খবর। গবেষণা বলছে, সামান্য মাত্রার মানসিক অস্বস্তি পুরানো কথা মনে রাখতে সহায়ক হতে পারে।

লাইফস্টাইল ডেস্কআইএএনএস/বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 March 2018, 08:04 AM
Updated : 1 March 2018, 08:04 AM

জার্নাল ব্রেইন সাইন্স’য়ে প্রকাশিত এই গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়ন্ত্রণযোগ্য মাত্রার মানসিক দুশ্চিন্তা বা অস্বস্তি মানুষকে অতীতের কোনো বিশেষ ঘটনা বিস্তারিতভাবে মনে করতে উপকারী ভূমিকা রাখে।

অপরদিকে, মানসিক অস্বস্তি বেশি হলে কিংবা ভয়ে রূপ নিলে তা স্মৃতির উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। যেমন- স্বাভাবিক একটি স্মৃতি বা অভিজ্ঞতাও এই বিরূপ প্রভাবের কারণে নেতিবাচক মোড় নিতে পারে।- দাবি গবেষকদের।

কানাডার ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াটারলু’য়ের অধ্যাপক মাইরা ফার্নান্দেজ বলেন, “যাদের মানসিক অস্বস্তির মাত্রা অত্যন্ত বেশি, তাদের সাবধান থাকা উচিত।”

তিনি আরও বলেন, “একটি নির্দিষ্ট মাত্রা পর্যন্ত মানসিক অস্বস্তি আপনাকে স্মৃতিশক্তিকে প্রখর করতে সাহায্য করবে। তবে অন্যান্য গবেষকদের গবেষণা থেকে আমরা জানি, এই অস্বস্তিরও এমন এক মাত্রা রয়েছে যা স্মৃতিশক্তি গুরুতর ক্ষতির কারণ হতে পারে।”

এই গবেষণায় জন্য ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াটারলু’য়ের ৮০ জন স্নাতক পড়ুয়া শিক্ষার্থীকে পর্যবেক্ষণ করেন গবেষকরা। এরমধ্যে ৬৪ জনই ছিলেন নারী।

অর্ধেক অংশগ্রহণকারীকে বিচ্ছিন্নভাবে বাছাই করে ‘ডিপ এনকোডিং ইন্সট্রাকশন গ্রুপ’য়ে আর বাকি অর্ধেককে ‘শ্যালো এনকোডিং গ্রুপ’য়ে বিভক্ত করা হয়।

ফলাফলে দেখা যায়, যাদের মানসিক অস্বস্তির মাত্রা বেশি ছিল, স্মৃতির উপর আবেগের প্রভাবের সংবেদনশীলতা তাদের বেশি। ‘এনকোডিং’ চলার সময়ে নিরপেক্ষ স্মৃতি যেই আবেগের সংস্পর্শে এসেছে, সেটাতেই প্রভাবিত হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষক ব্যাখ্যা করেন, “আবেগঘন মুহূর্ত সম্পর্কে চিন্তা করা কিংবা নেতিবাচক কোনো ঘটনার কথা চিন্তা করা মানুষের মধ্যে বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে নেতিবাচক মানসিকতা তৈরি করতে পারে।”

ছবির মডেল: আলিফ। ছবি: ই স্টুডিও।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক