এক যুগ পার করে আইপিডিসি ছাড়লেন মমিনুল ইসলাম

২০১২ সাল থেকে তিনি ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে আইপিডিসিতে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Nov 2023, 03:45 PM
Updated : 29 Nov 2023, 03:45 PM

ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে এক যুগ দায়িত্ব পালন শেষে ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড থেকে পদত্যাগ করেছেন মমিনুল ইসলাম।

বুধবার প্রতিষ্ঠানিটর পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে তার পদত্যাগপত্র মঞ্জুর করা হয়। এখন বাংলাদেশ ব্যাংকে আনুষ্ঠানিকতা শেষে দায়িত্ব হস্তান্তর করবেন বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন মমিনুল ইসলাম।

তিনি বলেন, “একটানা চার মেয়াদে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছি আইপিডিসিতে। মেয়াদ আর বাড়াতে চাচ্ছি না। এজন্য নিজেই পদত্যাগ করেছিলাম। আজকের (বুধবার) মিটিংয়ে তা মঞ্জুর করেছে বোর্ড।”

তবে আগামী ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত বর্তমান দায়িত্ব পালন করে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এনবিএফআই খাতের প্রতিষ্ঠান আইপিডিসিতে মমিনুল ইসলাম যোগ দিয়েছিলেন ২০০৬ সালে। বিভিন্ন পদে কাজ করার পর ২০১২ সালের জানুয়ারিতে কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী পদে আসেন।

বহুজাতিক ও সরকারি অংশীদারিত্বে ১৯৮১ সালে বেসরকারি খাতে এনবিএফআই হিসেবে প্রথম প্রতিষ্ঠিত হয় ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রোমোশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড। পরবর্তীতে যা নাম বদলে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (আইএফসি), জার্মানির জার্মান ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি (ডিইজি), সুইজারল্যান্ডের দ্য আগা খান ফান্ড ফর ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট (একেএফইডি), যুক্তরাজ্যের কমনওয়েলথ ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (সিডিসি) এবং বাংলাদেশ সরকার এ উদ্যোগে সম্পৃক্ত ছিল।

এরপর একে একে বিদেশি উদ্যোক্তারা শেয়ার ছেড়ে চলে গেলেও যুক্ত হয়েছে আরব আমিরাতভিত্তিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান আরএসএ ক্যাপিটাল লিমিটেড।

২০২২ সালের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, আইপিডিসির মোট শেয়ারের মধ্যে ব্র্যাকের ২৫ শতাংশ, বাংলাদেশ সরকারের ২১ দশমিক ৯ শতাংশ, আয়শা-আবেদ ফাউন্ডেশনের ১০ শতাংশ, ব্লুচিপস সিকিউরিটিজ লিমিটেড, আরএসএ ক্যাপিটাল লিমিটেডের ৫ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৩০ দশমিক এক শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তথ্য অনুযায়ী, গত ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছে প্রতিষ্ঠানটির মোট শেয়ারের মাত্র শূন্য দশমিক ০৬ শতাংশ রয়েছে।