মাংস সরবরাহের নামে প্রতারণার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

অনলাইন বিক্রেতাদের কাছে মাংস সরবরাহের কথা বলে টাকা নিয়ে লাপাত্তা হন তিনি।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 April 2024, 01:53 PM
Updated : 2 April 2024, 01:53 PM

চট্টগ্রামে সস্তা দরে গরুর মাংস সরবরাহ করার কথা বলে প্রায় দেড় কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া এক ব্যক্তিকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই।

ঢাকার উত্তরা থেকে সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়।

গ্রেপ্তার মো. শাহজাহান (৪০) চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার দক্ষিণ মাদার্শা ইউনিয়নের বাসিন্দা।

পিবিআই চট্টগ্রাম জেলার এসআই শাহাদাত হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, শাহজাহান পেশায় গরুর মাংস বিক্রেতা; যারা অনলাইনে কমদামে মাংস বিক্রি করেন, তাদের মাংস সরবরাহ করেন তিনি।

শাহাদাত জানান, রোজার মাসে গরুর মাংসের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় শাহজাহানকে মাংস সরবরাহের ক্রয়াদেশ দেন অনলাইন বিক্রেতারা। গত ৭ ও ৮ মার্চ তাদের কাছ থেকে অগ্রিম টাকা নিয়ে ১০ মার্চ মাংস সরবরাহ করার কথা ছিল।

এসআই শাহাদাত জানান, রাফিউল হাসনাত নামে এক অনলাইন উদ্যোক্তা সম্প্রতি পিবিআই কার্যালয়ে অভিযোগ করেন, তিনি শাহজাহানকে ৫৮ মণ মাংসের অর্ডার দিয়ে নগদ সাড়ে ১৪ লাখ টাকা দেন। এরপর থেকে শাহজাহান লাপাত্তা।

এ অভিযোগের তদন্ত করতে গিয়ে সত্যতা পেয়ে শাহজাহানকে গ্রেপ্তার করা হয় জানিয়ে পিবিআই কর্মকর্তা শাহাদাত বলেন, রাফিউল ছাড়াও আরও ১৩ জনের কাছ থেকে মোট ১ কোটি ৪০ লাখ ২৩ হাজার টাকা আত্মসাৎ করার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এসআই শাহাদাত বলেন, শাহজাহানকে গ্রেপ্তারের খবর পেয়ে আরও অন্তত ২০ জন বিক্রেতা তাদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ নিয়ে এসেছেন। সেগুলোও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

টাকা আত্মসাতের ঘটনায় শাহজাহানের বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় রাফিউল হাসনাত বাদী হয়ে প্রতারণার অভিযোগে মামলা করেছেন।

শাহজাহান প্রতি কেজি ৬০০ টাকা করে প্রতি মণ মাংস ২৪ হাজার টাকায় অনলাইন বিক্রেতাদের কাছে সরবরাহ করেন। আর অনলাইন বিক্রেতারা সেগুলো ৬৮০ টাকা দরে বিক্রি করেন।