ধোনির জায়গায় চেন্নাইয়ের নেতৃত্বে রুতুরাজ

টুর্নামেন্ট শুরুর আগের দিন নতুন অধিনায়কের নাম ঘোষণা করল শিরোপাধারীরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 March 2024, 11:51 AM
Updated : 21 March 2024, 11:51 AM

শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে নামার আগে বড় একটি সিদ্ধান্ত নিল চেন্নাই সুপার কিংস। অধিনায়কত্বে বদল আনার ঘোষণা দিল পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা। আইপিএলের শুরু থেকে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া মাহেন্দ্র সিং ধোনির জায়গায় আনা হলো রুতুরাজ গায়কোয়াড়কে।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে চেন্নাইয়ের ম্যাচ দিয়ে শুক্রবার পর্দা উঠবে এবারের আইপিএলের। আগের দিন নেতৃত্বে পরিবর্তন আনার কথা জানিয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

২০০৮ সালে আইপিএলের উদ্বোধনী আসরের আগে নিলামে তখনকার সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় হিসেবে ধোনিকে দলে নেয় চেন্নাই। তখন থেকেই দলটির অধিনায়ক ছিলেন তিনি।

মাঝে ২০২২ সালে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে চেন্নাইয়ের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ান ধোনি। পরে রবীন্দ্র জাদেজার কাঁধে তুলে দেওয়া আইপিএলের সফলতম দলটির দায়িত্ব।

তখন মনে করা হয়েছিল, অধিনায়কের হিসেবে ধোনির অধ্যায় শেষ। কিন্তু সেবার জাদেজার নেতৃত্বে পথ হারিয়ে ফেলে চেন্নাই। আসরের শুরুর দিকে ম্যাচ জিততে ভোগে তারা। শেষ পর্যন্ত মাঝপথে নেতৃত্ব ছেড়ে দেন জাদেজা। ফের ধোনিকে নেতৃত্ব নিতে অনুরোধ করেন।

সেবার আর খুব বেশি ভালো করতে পারেনি চেন্নাই। ১০ দলের টুর্নামেন্টে ১৪ ম্যাচে স্রেফ ৪টি জিতে আসর শেষ করে তারা নবম স্থানে থেকে।

গত আসরে প্রথম থেকেই চেন্নাইকে পথ দেখান ধোনি। তার নেতৃত্বে ২০২৩ সালে পঞ্চম শিরোপা ঘরে তোলে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। চেন্নাইয়ের সমর্থকদের কাছে ‘থালা’ বা ‘নেতা’ নামে পরিচিত ধোনির হাত ধরে দলটি রানার্স আপ হয়েছে পাঁচ বার (২০০৮, ২০১২, ২০১৩, ২০১৫ ও ২০১৯)।

এবারও ৪২ বছর বয়সী ধোনির নেতৃত্বেই খেলবে চেন্নাই, আশায় ছিলেন দলটির সমর্থকরা। কিন্তু হুট করে শেষ মুহূর্তে নেতৃত্বে বদল আনার কথা জানায় ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে চেন্নাইয়ের খেলা ২৪৯ ম্যাচের ২৩৫টিতেই নেতৃত্ব দিয়েছেন ধোনি। তার নেতৃত্বে দুটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি-টোয়েন্টির শিরোপাও জিতেছে দলটি। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে চেন্নাই নিষিদ্ধ থাকার সময় রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টসকে ১৪ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

সব মিলিয়ে আইপিএলে একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে দুইশ (২২৬) ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন ধোনি। সবচেয়ে বেশি ১৩৩ ম্যাচ জিতেছেন তিনি। এখনও একশ ম্যাচও জিততে পারেননি আরও কেউ।

২০২০ সালে চেন্নাইয়ে যোগ দেওয়া রুতুরাজ পরের আসরে উপহার দেন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। এক সেঞ্চুরি ও ৪ ফিফটিতে আসরের সর্বোচ্চ ৬৩৫ রান করে চেন্নাইয়ের শিরোপা জয়ে রাখেন সবচেয়ে বড় অবদান। এরপর থেকেই শোনা যাচ্ছিল ধোনির জায়গায় দলটির নেতৃত্বে আসতে পারেন রুতুরাজ। দুই আসর পর অবশেষে সেই দায়িত্ব পেয়েই গেলেন ২৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

চেন্নাইয়ের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫২ ম্যাচে রুতুরাজ ৩৯.০৬ গড় ও ১৩৫.৫২ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন ১ হাজার ৭৯৭। নামের পাশে এক সেঞ্চুরির সঙ্গে ফিফটি ১৪টি। দলটির সপ্তম সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি।

আইপিএলে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে ভারতের হয়ে এরই মধ্যে ৬টি ওয়ানডে ও ১৯টি টি-টোয়েন্টি খেলে ফেলেছেন রুতুরাজ।

শুধু নেতৃত্বই নয়, ব্যাটিংয়ে চেন্নাইকে ভালো শুরু এনে দেওয়ার দায়িত্বও রুতুরাজের কাঁধে। একই সঙ্গে দুই দায়িত্বে কেমন করেন এই ওপেনার, দেখা যাবে শুক্রবার থেকেই।