অভিষেকে উজ্জ্বল মারুফা, বদলায়নি বাংলাদেশের ভাগ্য

এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জিতে নিয়েছে স্বাগতিক নিউ জিল্যান্ড।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Dec 2022, 10:02 AM
Updated : 4 Dec 2022, 10:02 AM

বোলিং-ব্যাটিং দুই বিভাগেই উন্নতি হলো বাংলাদেশ নারী দলের। অভিষেকে বল হাতে আলো ছড়ালেন মারুফা আক্তার। তবুও নিউ জিল্যান্ডের ধারেকাছে যাওয়া সম্ভব হয়নি। তাই আগের ম্যাচের চেয়ে ব্যবধান কমলেও বদলায়নি ম্যাচের ফল। অনায়াস জয়ে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। 

ডানেডিনের ইউনিভার্সিটি ওভালে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৩৭ রানের জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা। তাদের করা ৪ উইকেটে ১৪৮ রানের জবাবে বাংলাদেশের ইনিংস থেমেছে ১১১ রানে। প্রথম ম্যাচে স্রেফ ৩২ রানে গুটিয়ে ১৩২ রানের রেকর্ড ব্যবধানে হেরেছিল নিগার সুলতানার দল। 

ব্যাটিংয়ে ঝড়ো ইনিংস খেলার পর বল হাতে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের আটকে রাখার কাজ ঠিকঠাক করেন অ্যামিলিয়া কার। ৩০ বলে ৪৬ রান করে দলকে এনে দেন ভালো পুঁজি। পরে বোলিংয়ে উইকেট না পেলেও ৪ ওভারে দেন স্রেফ ২০ রান। তার হাতেই ওঠে ম্যাচ সেরার পুরস্কার। 

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নিউ জিল্যান্ডের শুরুটা স্বস্তির ছিল না। পাওয়ার প্লেতে অধিনায়ক সোফি ডিভাইন ও জর্জিয়া প্লিমারকে বিদায় করেন ডানহাতি মিডিয়াম পেসার মারুফা। অভিষিক্ত রেবেকা বার্নস ও সুজি বেটসও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। 

ইনিংসের ১২ ওভারের মধ্যে ৭১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে খানিক চাপে পড়ে নিউ জিল্যান্ড। এরপর পঞ্চম উইকেট জুটিতে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নিয়ে নেন অ্যামিলিয় ও ম্যাডি গ্রিন। 

অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ৪৯ বলে ৭৭ রান যোগ করেন এ দুজন। অল্পের জন্য ফিফটি পাননি অ্যামিলিয়া। ৫ চারে ৪৬ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। গ্রিনের ব্যাট থেকে আসে ৪ চারে ২৫ বলে ৩৭ রান। 

বাংলাদেশের হয়ে ৪ ওভারে স্রেফ ২২ রান খরচায় ২ উইকেট পেয়েছেন মারুফা। রিতু মনি ও রুমানা আহমেদের শিকার বাকি ২ উইকেট। 

রান তাড়ায় নেমে স্টাম্পিং ও রান আউটের বৃত্তে আটকা পড়ে বাংলাদেশের টপ অর্ডার। দ্বিতীয় ওভারে ফ্রান জোনাসের বলে উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে খেলতে গিয়ে আউট হন বাঁহাতি ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। আরেক ওপেনার দিলারা আক্তার ১৪ বলে ১ রান করে ড্রেসিংরুমে ফেরেন রান আউটে কাটা পড়ে। 

তৃতীয় উইকেটে ধাক্কা সামাল দিয়ে ৪৫ রানের জুটি গড়েন শারমিন আক্তার ও নিগার সুলতানা। তবে রানের গতি বাড়াতে পারেননি তারা। ২ চারে ৩০ বলে ২২ রান করেন শারমিন। অধিনায়ক করেন ৪ চারে ৩৩ বলে ৩১ রান। দুজনই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন রান আউট হয়ে।  

এরপর আর কেউই বলার মতো কিছু করতে পারেননি। ফারজানা হক ১৫ রান করলে কোনোমতে একশ পেরোয় দলীয় সংগ্রহ। 

নিউ জিল্যান্ডের হয়ে ১২ রান খরচায় ২ উইকেট পেয়েছেন হেইলি জেনসেন। 

আগামী ৭ ডিসেম্বর কুইন্সটাউনে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে দুই দল। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

নিউ জিল্যান্ড: ২০ ওভারে ১৪৮/৪ (ডিভাইন ১৯, বেটস ২০, প্লিমার ৩, বার্নস ২০, অ্যামিলিয়া ৪৬*, গ্রিন ৩৭*; জাহানারা ৪-০-৪৩-০, মারুফা ৪-০-২২-২, সালমা ৩-০-২০-০, নাহিদা ৪-০-৩২-০, রিতু ৩-০-১২-১, রুমানা ২-০-১৭-১) 

বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১১১/৮ (মুর্শিদা ৩, দিলারা ১, শারমিন ২২, নিগার ৩১, ফারজানা ১৫, রিতু ৯*, রুমানা ৫, মারুফা ৩, নাহিদা ৯; ডিভাইন ২-০-১৫-০, জোনাস ৪-০-১৮-১, জেনসেন ৩-০-১২-২, তাহুহু ৪-০-২৩-১, কারসন ৩-০-১৯-১, অ্যামিলিয়া কার ৪-০-২০-০) 

ফল: নিউ জিল্যান্ড ৩৭ রানে জয়ী 

প্লেয়ার অব দা ম্যাচ: অ্যামিলিয়া কার

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক