আজমকে সিপিএল খেলার ছাড়পত্র দিল না পিসিবি

ক্যারিবিয়ান লিগে না খেলে আগ্রাসী এই ব্যাটসম্যানকে ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে খেলতে বলেছে পাকিস্তানের বোর্ড।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 August 2022, 03:43 AM
Updated : 19 August 2022, 03:43 AM

ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ নাকি দেশের বাইরে ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি? বর্তমান ক্রিকেট বাস্তবতায় এটি কোনো প্রশ্নই নয়। ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টিতে খেলতে মুখিয়ে থাকেন বিশ্বজুড়ে প্রায় সব ক্রিকেটার। এই চাওয়া ছিল আজম খানেরও। কিন্তু এবার তার আশা পূরণ হতে দেয়নি পাকিস্তানের বোর্ড। আগ্রাসী এই ব্যাটসম্যানকে ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে খেলতে বলে দিয়েছে পিসিবি।

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) গত আসরে বারবাডোজ রয়্যালসের হয়ে খেলেন আজম। পারফরম্যান্স খুব ভালো ছিল না। ৮ ম্যাচে ফিফটি করেন মোটে ১টি। তবে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের একটি পরিচিত তিনি গড়তে পেরেছেন। ৭৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রায় দেড় হাজার রান করেছেন তিনি ১৪৪.১৭ স্ট্রাইক রেটে। বারবাডোজ এবারও ধরে রেখেছে তাকে।

কিন্তু আজম পারছেন না ক্যারিবিয়ায় যেতে। আগামী ৩০ অগাস্ট থেকে শুরু পাকিস্তানের ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপ। সিপিএল শুরু ১ সেপ্টেম্বর থেকে। পিসিবির মিডিয়া পরিচালক সামি বার্নি ক্রিকেট পাকিস্তানকে বলেন, আজমকে ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে খেলতে বলা হয়েছে।

“দুই টুর্নামেন্টের সূচি অনেকটাই সাংঘর্ষিক। বোর্ডের চাওয়া, পাকিস্তান ক্রিকেট দলে জায়গা পাওয়ার আশায় থাকা তরুণ ক্রিকেটাররা যেন জাতীয় টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে।”

গত বছর পাকিস্তানের হয়ে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলেন আজম। এরপর আর কোনো সুযোগ পাননি তিনি। পাকিস্তানের সাবেক কিপার-ব্যাটসম্যান মঈন খানের ছেলে এই ব্যাটসম্যান প্রায়ই সমালোচনার শিকার হন তার ফিটনেসের ঘাটতির অভিযোগে।

১৯ বছর বয়সী উঠতি প্রতিভা কাসিম আকরামকেও একইভাবে ছাড়পত্র দেয়নি পিসিবি। গত বছর অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তানতে নেতৃত্ব দেওয়া এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের খেলার কথা ছিল সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসে।

পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়া দুই ক্রিকেটার মোহাম্মদ আমির ও ইমাদ ওয়াসিম অবশ্য খেলবেন সিপিএলে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক