সব হারিয়ে জিতল চট্টগ্রাম

জাতীয় লিগে ফের দ্বিতীয় স্তরে নেমে গেছে চট্টগ্রাম বিভাগ।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Nov 2022, 08:52 AM
Updated : 17 Nov 2022, 08:52 AM

প্রথম পাঁচ রাউন্ডে জয় নেই একটিতেও। অবনমন নিশ্চিত হয়ে যায় আগেই। সব হারানোর পর এবারের জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডে এসে নিজেদের প্রথম জয়ের দেখা পেল চট্টগ্রাম বিভাগ। হাসান মুরাদের ঘূর্ণিতে রোমাঞ্চকর ম্যাচে ঢাকা বিভাগকে হারাল ইরফান শুক্কুরের দল। 

বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে শেষ দিনের রোমাঞ্চে চট্টগ্রামের জয় ২৭ রানে। ৫ উইকেট হাতে নিয়ে বৃহস্পতিবার জয়ের জন্য ঢাকার প্রয়োজন ছিল ৮৭ রান। কিন্তু দিনের প্রথম সেশনে আর ৫৯ রান করতেই তাদের ইনিংসে গুটিয়ে দেয় চট্টগ্রাম। 

২৫৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে ঢাকা করতে পারে ২২৭ রান।

প্রথম ইনিংসে চট্টগ্রামের সংগ্রহ ছিল ২০৩ রান। জবাবে ঢাকা ১৯৮ রানে অলআউট হলে চট্টগ্রাম পায় ৫ রানের লিড। দ্বিতীয়বার ব্যাট করে ২৪৯ রানে থামে চট্টগ্রামের ইনিংস। 

চট্টগ্রামের এই জয়ের কারিগর মুরাদ প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেটের পর এবার নিলেন ৮৯ রানে নেন ৬টি। প্রথম শ্রেণিতে ১৮ ম্যাচের ক্যারিয়ারে এটি তার নবম পাঁচ উইকেট। এবারের লিগে পেলেন চতুর্থবার। সবমিলিয়ে ৬ ম্যাচে ২১ বছর বয়সী বাঁহাতি স্পিনারের শিকার ২৮ উইকেট। 

শেষটা জয়ে রাঙালেও আগামী আসরে আবারও দ্বিতীয় স্তরে খেলতে হবে চট্টগ্রামকে। ২০১৫-১৬ সালের মৌসুম থেকে দুই স্তরে ভাগ করে খেলা হচ্ছে জাতীয় লিগে। এবারের মৌসুমেই প্রথমবার প্রথম স্তরে খেলেছে তারা।

৬ ম্যাচে স্রেফ ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে এবারের জাতীয় লিগ শেষ করল চট্টগ্রাম। দ্বিতীয় স্তরে চ্যাম্পিয়ন হয়ে প্রথম স্তরে উঠেছে ঢাকা মেট্রো। 

৫ উইকেটে ১৬৮ রানে শেষ দিনের খেলা শুরু করা ঢাকা প্রথম ওভারেই নাদিফ চৌধুরীকে হারায়। পরের ওভারে সাজঘরে ফেরেন ঢাকার অধিনায়ক তাইবুর পারভেজও। 

শুরুতেই জোড়া ধাক্কার পর কিছুক্ষণ লড়াই করেন সুমন খান ও শাহবাজ চৌহান। অষ্টম উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন ৫৭ রান। সুমন ১৯ রানে আউট হওয়ার পর সঙ্গী পাননি শাহবাজ। শেষ পর্যন্ত ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

আগের দিন ৪ উইকেট নেওয়া মুরাদ এদিন ধরেন সুমন ও সালাউদ্দিন সাকিলের উইকেট। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর: 

চট্টগ্রাম ১ম ইনিংস: ২০৩ 

ঢাকা ১ম ইনিংস: ১৯৮ 

চট্টগ্রাম ২য় ইনিংস: ২৪৯ 

ঢাকা ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ২৫৫) ৭৩.৫ ওভারে ২২৭ (আগের দিন ১৬৮/৫) (তাইবুর ৭২, নাদিফ ২২, সুমন ১৯, শাহবাজ ৩৩*, শাকিল ০, রিপন ০; মিশু ১৬-২-৫০-৩, মুরাদ ৩১-১১-৮৯-৬, মেহেদি ৮-০-৩৪-০, নাঈম ১৮.৫-৫-৪০-১) 

ফল: চট্টগ্রাম বিভাগ ২৭ রানে জয়ী 

ম্যান অব দা ম্যাচ: হাসান মুরাদ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক