বিএটিবি থেকে সরকারের শেয়ার প্রত্যাহার চান পরিকল্পনামন্ত্রী

কোম্পানিটিতে সরকারের শূন্য দশমিক ৬৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Nov 2022, 05:44 PM
Updated : 30 Nov 2022, 05:44 PM

বহুজাতিক সিগারেট কোম্পানি ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোতে (বিএটিবি) থাকা বাংলাদেশ সরকারের ‘সামান্য’ শেয়ার প্রত্যাহারে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করবেন বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে ‘তামাক কোম্পানির সিএসআর: মিথ ও বাস্তবতা’ শীর্ষক সভায় তিনি এ কথা জানান।

ওয়ার্ক ফর বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট ও ইনিশিয়েটিভ ফর পাবলিক হেলথ রিসার্চ অ্যান্ড কমিউনিকেশন (আইপিএইচআরসি) যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে।

সরকারের তামাক বিরোধি নীতিতে অটল থাকার প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে বিএটির ব্যবস্থাপনা পর্ষদ থেকেও সচিবদের বের করে নিয়ে আসা উচিত বলেও মন্তব্য করেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

বিএটিতে বাংলাদেশ সরকারের শূন্য দশমিক ৬৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

সভায় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী বলেন, তামাকের বিরুদ্ধে আমাদের প্রচেষ্টা আসলে অসম যুদ্ধ। আমাদের সিদ্ধান্তে আসতে হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০৪০ সালের মধ্যে দেশকে তামাক মুক্ত করার যে ঘোষণা দিয়েছেন সেটা পূরণ করব কি না?

তিনিও তামাক কোম্পানি থেকে সরকারের শেয়ার প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বলেন, “করোনার সময় স্বাস্থ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের মধ্যে মতনৈক্য আমরা দেখেছি। এটা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।“

জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেলের (এনটিসিসি) সমন্বয়কারী হোসেন আলী খোন্দকার বলেন, যখন সরকার তামাক নিয়ন্ত্রণের কোনো পদক্ষেপ নেয় তখন তামাক কোম্পানি সিএসআর বাড়িয়ে দেয় এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে এনটিসিসি ইতোমধ্যেই একটি রোডম্যাপ প্রণয়নের কাজ শুরু করেছে বলে জানান তিনি।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক নাসির উদ্দীন আহমেদ বলেন, তামাকের বিকল্প খাত থেকে রাজস্ব আয় করতে সরকারকে নতুন খাতের খোঁজ করতে হবে।

সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে গবেষক ও সাংবাদিক সুশান্ত সিনহা বলেন, ইতোমধ্যে ৬২টি দেশ সিগারেট কোম্পানির সিএসআর নিষিদ্ধ করেছে। অথচ বছরে মাত্র ছয় কোটি টাকা সিএসআর ব্যয় করে ফলাও করে প্রচার করে বিএটিবি বলে দাবি তার।

“সরকার যখন তামাক নিয়ন্ত্রণে কোনো পদক্ষেপ নেয় তখন সিএসআরে ব্যয় বাড়ায় বৃদ্ধি করে বিএটিবি।“

অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক সংস্থা দ্য ইউনিয়নের কারিগরি পরামর্শক অ্যাডভোকেট সৈয়দ মাহবুবুল আলম তাহিন, তামাকবিরোধী নারী জোটের নির্বাহী পরিচালক ফরিদা আকতার ও ভাইটাল স্ট্রাটেজিসের বাংলাদেশের হেড অব প্রোগ্রামস শফিকুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক