সাংবাদিককে পিটুনি: আত্মসমর্পণ করে দুই ছাত্রলীগ নেতার জামিন

গত ২২ মার্চ তিতুমীর কলেজ ক্যাম্পাসের অদূরে পেটানো হয় সাংবাদিক সাব্বির আহমেদকে।

আদালত প্রতিবেদক
Published : 25 March 2024, 12:08 PM
Updated : 25 March 2024, 12:08 PM

দৈনিক সময়ের আলোর প্রতিবেদক সাব্বির আহমেদের ওপর হামলার মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন ছাত্রলীগ নেতাসহ দুই আসামি।

তারা হলেন তিতুমীর সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের সহসম্পাদক এস এম ইমরুল রুদ্র ও সাইফুল নিজাম কায়সার।

সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম সাইফুল ইসলামের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন তারা। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। দুই পক্ষের শুনানি শেষে আদালত পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত তাদের জামিন দেন।

আদালতে বনানী থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহ আলম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বিষয়টি জানান।

মামলার এজহারে বলা হয়, গত ২২ মার্চ সন্ধ্যা ৭ টার দিকে তিতুমীর কলেজে ইফতার শেষে বের হয়ে আসার সময় আক্কাছুর রহমান আঁখি ছাত্রাবাসের মূল ফটকের সামনে বটতলায় আসামিরা লোহার রড, হকিস্টিক ও লাঠি নিয়ে সাব্বির আহমেদের ওপর আক্রমণ করে। লোহার রড দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করা হয়।

সাব্বির তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সাবেক সভাপতি। অভিযোগ, কলেজ ক্যাম্পাস ও আশপাশের এলাকার অনিয়ম ও চাঁদাবাজি নিয়ে সাংবাদিকরা সংবাদ প্রকাশ করায় এই হামলা হয়েছে।

তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের নেতাদের ইন্ধনে ১০ থেকে ১৫ জন মিলে বেধড়ক পিটিয়েছে বলে অভিযোগ তার। তিনি এখন ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এই ঘটনায় বনানী থানার মামলা করা হয়েছে।

তার ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে সাংবাদিকরা শনিবার তিতুমীর কলেজ গেটের সামনে মানববন্ধন করে আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

মানববন্ধনে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে কর্মরত তিতুমীর কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী, তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সদস্য এবং সাংবাদিক নেতারা অংশ নেন।

এই ঘটনায় কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ইমরুল রুদ্রকে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় কমিটি।

আরো পড়ুন:

Also Read: তিতুমীর কলেজে সাংবাদিকের ওপর হামলা:২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার দাবি