প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ: ‘টিকিয়ে দেবার প্রলোভন’ দেখিয়ে গ্রেপ্তার ৩

ওই ‘জালিয়াত চক্রের’ সদস্যরা ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার বিনিময়ে প্রার্থীদের ‘টিকিয়ে দেবার নিশ্চয়তা’ দিচ্ছিল।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 02:59 PM
Updated : 1 Feb 2024, 02:59 PM

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে দ্বিতীয় ধাপের লিখিত পরীক্ষায়

‘টিকিয়ে দেবার প্রলোভন’ দেখানোর অভিযোগে এক কলেজ অধ্যক্ষসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে জয়পুরহাট জেলা পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন- জয়পুরহাটের পাঁচবিবি কৃষি কলেজের অধ্যক্ষ মো. রুস্তম আলী, মো. ইশান ইমতিয়াজ, গোকুল, বগুড়া সদর এবং কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের রোকনুজ্জামান।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

শুক্রবার রাজশাহী, খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগের ২২টি জেলা শহরে সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদের নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা রয়েছে।

দ্বিতীয় ধাপের এই লিখিত পরীক্ষায় তিন জেলার ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৪৪৩ জন চাকরিপ্রত্যাশীর অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ওই ‘জালিয়াত চক্রের’ সদস্যরা ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার বিনিময়ে প্রার্থীদের ‘টিকিয়ে দেবার নিশ্চয়তা’ দিচ্ছিল।

গ্রেপ্তার করার পর জয়পুরহাটের পাঁচবিবি থানায় মামলা দায়ের করে তাদের তিনজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ধরনের প্রলোভনে কান না দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত বলেন, প্রথম ধাপের পরীক্ষার সময়ও এ ধরনের চক্র সক্রিয় ছিল।

“আইন প্রয়োগকারী বাহিনীর সজাগ ও সতর্ক ভূমিকার কারণে তাদের অপপ্রয়াস ব্যর্থ হয়েছে। সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় যে কোনো ধরনের অনিয়ম ঠেকানোর জন্য সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।”

জালিয়াতি চক্রের কোনো তৎপরতা দেখলে নিকটস্থ থানায় জানানোর পরামর্শ দিয়েছেন মহাপরিচালক ।