প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঘানার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ, বাণিজ্য বাড়াতে সম্মত দুই দেশ

আফ্রিকার দেশগুলোর সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “বাণিজ্য উন্নয়নের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে।”

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Feb 2024, 03:37 PM
Updated : 20 Feb 2024, 03:37 PM

পারস্পরিক ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে সম্মত হয়েছে বাংলাদেশ ও ঘানা। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ঘানার পররাষ্ট্র ও আঞ্চলিক সংহতি বিষয়ক মন্ত্রী শার্লি আয়োরকর বোচওয়ের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সৌজন্য করতে গেলে এ বিষিয়ে আলোচনা হয়। 

পরে প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।  

তিনি বলেন, , “দুই দেশ বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য কৃষি, ওষুধ, আইসিটি, কৃষিভিত্তিক খাদ্যপণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য এবং টেক্সটাইলকে চিহ্নিত করেছে।” 

টানা চতুর্থ মেয়াদে পুনর্নির্বাচিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঘানার প্রেসিডেন্টের শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। 

দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে উল্লেখ করে ঘানার মন্ত্রী বলেন, দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। 

নজরুল ইসলাম বলেন, “এক্ষেত্রে শার্লি আয়োরকর কৃষি, ফার্মাসিউটিক্যালস, আইসিটি, কৃষি এবং খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণের কথা উল্লেখ করেন।” 

ঘানার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আগামী অক্টোবরে অনুষ্ঠিতব্য কমনওয়েলথ মহাসচিব নির্বাচনে তার দেশের প্রার্থিতার জন্য বাংলাদেশের সমর্থন চান। 

আফ্রিকার দেশগুলোর সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “বাণিজ্য উন্নয়নের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে।” 

এ প্রসঙ্গে তিনি পাট ও পাটজাত পণ্য এবং বস্ত্র সামগ্রীর কথা উল্লেখ করেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আফ্রিকার দেশগুলো বাংলাদেশ থেকে এসব পণ্য আমদানি করতে পারে।” 

কমনওয়েলথ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, “এক সময় এই সংগঠনটি নিষ্ক্রিয় ছিল। কিন্তু সম্প্রতি এটি সক্রিয় হয়েছে; বিনিয়োগ ও মানবসম্পদ প্রশিক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।” 

কমনওয়েলথ মহাসচিব পদে যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। 

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।