লালকুঠিকে বুড়িগঙ্গা থেকে দৃশ্যমান করতে ডিএসসিসির কমিটি

কমিটি লালকুঠির দক্ষিণ দিকে বুড়িগঙ্গা নদী পর্যন্ত ৪৫ ডিগ্রি কৌণিক অংশে লঞ্চঘাটসহ সব ধরনের স্থাপনা পরিদর্শন করবে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 02:45 PM
Updated : 1 Feb 2024, 02:45 PM

পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা লালকুঠিকে যাতে বুড়িগঙ্গা নদী থেকেই দেখা যায়, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ছয় সদস্যের কমিটি করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

সিটি করপোরেশন ও বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তাদের নিয়ে গঠিত ওই কমিটিকে সরেজমিন পরিদর্শন করে আগামী ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার দপ্তর আদেশ জারি করেছেন ডিএসসিসি সচিব আকরামুজ্জামান।

এতে বলা হয়েছে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নিয়ন্ত্রণাধীন প্রাচীন ও সৌন্দর্যময় স্থাপনা ঐতিহ্য ভবন নর্থব্রুক হলের (লালকুঠি) নান্দনিক সৌন্দর্য বুড়িগঙ্গা নদী থেকে দৃশ্যমান করতে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটি লালকুঠির দক্ষিণ দিকে বুড়িগঙ্গা নদী পর্যন্ত ৪৫ ডিগ্রি কৌণিক অংশে বিদ্যমান লঞ্চঘাটসহ সব ধরনের স্থাপনা পরিদর্শন করবে। এসব স্থাপনা পরিদর্শন করে তা অপসারণ সংক্রান্ত প্রতিবেদন আগামী ৭ দিনের মধ্যে দিতে হবে।

ব্রিটিশ ভারতে লর্ড ব্রুকের সময় ১৮৭৭ সালে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে নান্দনিক এই ভবনটি তৈরি করা হয়। ঢাকার ঐতিহ্যের অংশ এই ভবনটি লালকুঠি নামে পরিচিত।

ব্রিটিশ রাজের দিনগুলোতে কেউকেটা আর গুণীজনদের আনাগোনায় মুখর থাকত ফরাশগঞ্জের এই লালকুঠি; ঢাকার বিনোদন ও সংস্কৃতিচর্চার অন্যতম প্রাণকেন্দ্র ছিল এই ভবন।

এই নর্থব্রুক হলেই ১৯২৬ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে ঢাকা পৌরসভার পক্ষ থেকে নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছিল। মূল ভবনের ডান দিকে ছিল বড় একটি মঞ্চ, সেখানে অভিনয় করতেন দেশবরেণ্য শিল্পীরা।

লালকুঠি এখন ‘ঝুঁকিপূর্ণ ভবন’ হিসেবে চিহ্নিত; তালাবন্ধ অবস্থায় পড়ে আছে বহু বছর হল। আশপাশ থেকে তাকে ঘিরে ফেলেছে লঞ্চঘাটের বর্ধিতাংশ, পার্কিংসহ অবৈধ স্থাপনা, নতুন নতুন ব্যবসা কেন্দ্র, দোকানপাট, কদাকার সব দালান কোঠা। 

এইসব আগ্রাসী অবকাঠামো ভেঙে পুরান ঢাকার লালকুঠির ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার কথা বলে আসছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।ইতিমধ্যে লালকুঠি সংস্কারের কাজও বেশ এগিয়েছে।

বুধবার লালকুঠি এলাকা পরিদর্শনে যান মেয়র তাপস। সে সময় সেসব স্থাপনা উচ্ছেদ করতে বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যানকে অনুরোধ করেন ডিএসসিসি মেয়র।