৫ জানুয়ারির ভোটে আইন শৃঙ্খলায় ব্যয় ১৮৩ কোটি টাকা

বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের প্রতিহতের হুমকির মধ্যে অনুষ্ঠিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষায় ১৮৩ কোটি টাকা খরচ হয়েছে, যা নির্বাচনের পরিচালন ব্যয়ের সোয়া দুই গুণ।

সংসদ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 March 2014, 05:05 PM
Updated : 19 March 2014, 05:57 PM

বুধবার জাতীয় সংসদে সংসদ কাজে দায়িত্বপ্রাপ্ত আইনমন্ত্রী আনিসুল হক স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজীর লিখিত প্রশ্নের জবাবে এই তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, সদ্য সমাপ্ত দশম সংসদ নির্বাচনে মোট ব্যয়ের পরিমাণ ২৬৪ কোটি ৬৭ লাখ ৪৯ হাজার ৪৬৯ টাকা।

“এর মধ্যে নির্বাচন পরিচালনায় ৮১ কোটি ৫৫ লাখ ৪১ হাজার ৩৪১ এবং আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর পেছনে ব্যয় হয়েছে ১৮৩ কোটি ১২ লাখ ৮ হাজার ১২৮ টাকা।“

বিএনপি বয়কট করায় সংসদের ৩০০ আসনের অর্ধেকের প্রার্থীর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় ৫ জানুয়ারি ১৪৭ আসনে ভোট হয়। এতে সহিংসতায় ২০ জনের বেশি নিহত হন, পুড়িয়ে দেয়া হয় শতাধিক ভোটকেন্দ্র।  

এই নির্বাচনে সেনাবাহিনীও মোতায়েন ছিল, আইনশৃঙ্খলার ব্যয়ের ৫৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা গেছে সশস্ত্র বাহিনীর খাতে।   

এছাড়া আনসার-ভিডিপি ৬২ কোটি ৫৯ লাখ ৯২ হাজার ৬৮৮, পুলিশ ৪৫ কোটি ৭৩ লাখ ১ হাজার ৬২৫, কোস্টগার্ড ৮ লাখ ১২ হাজার ৫০০, বিজিবি ১৫ কোটি ২৮ লাখ ১১ হাজার ৭৫ এবং র‌্যাব ২ কোটি ৬৫ লাখ ১৫ হাজার ৫০০ টাকা বরাদ্দ পেয়েছে।

এছাড়া র‌্যাবের ৬ লাখ, বিজিবির প্রায় ১ কোটি টাকা চাহিদার বিপরীতে বরাদ্দের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানান মন্ত্রী।

এই নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বিভিন্ন বাহিনীর পক্ষ থেকে মোট ২৮৮ কোটি ৭২ লাখ ৪২ হাজার ৭০৮ টাকা বরাদ্দ চাওয়া হলেও শেষ পর্যন্ত নির্বাচন কমিশন মোট ২১০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়।

এর মধ্যে আইন-শৃঙ্খলায় ১৪৪ কোটি এবং বাকি ৬৬ কোটি টাকা নির্বাচন পরিচালনায় বরাদ্দ রাখা হয়।

সে সময় কমিশন কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, শেষ পর্যন্ত নির্বাচন পরিচালনা (নতুন ব্যালট ছাপানো) ও আইন শৃঙ্খলায় (কেন্দ্রভিত্তিক নিরাপত্তা বাড়ানো) নতুন চাহিদায় এ ব্যয় সর্বোচ্চ ৫-১০ কোটি টাকা বাড়তে পারে।

জাতীয় পার্টির এ কে মাইদুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক জানান, এই নির্বাচনে ব্যালট পেপার ও ব্যালট বাক্সের নিরাপত্তার জন্যে ৩০ লাখ ৯৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়।

প্রাথমিকভাবে নির্বাচন পরিচালনা ও আইন-শৃঙ্খলা মিলিয়ে প্রায় ৬০০  কোটি টাকার সম্ভাব্য ব্যয় ধরেছিল ইসি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক