অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী

মুক্তিযোদ্ধা-ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর গোড়ালিতে অস্ত্রোপচারের পর তাকে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Dec 2017, 12:11 AM
Updated : 11 Dec 2017, 12:19 AM

রোববার রাতে বঙ্গবন্ধু শেখমুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার হয়।

এরপর সেখানেই তাকে সিসিইউতেপর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন ফেরদৌসীপ্রিয়ভাষিণীর ছেলে কারু তিতাস।

তিনি বলেন, “মায়ের যেঅবস্থা, ডাক্তাররা বলছেন ৭২ ঘণ্টা না কাটলে তারা সুনির্দিষ্ট কিছু বলতে পারছেন না।

হাসপাতালের অর্থোপেডিকসবিভাগের চিকিৎসক অধ্যাপক নকুল দত্তের অধীনে তার চিকিৎসা চলছে।

ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীডায়াবেটিস ও কিডনি জটিলতায় ভুগছেন বলেও জানান কারু তিতাস।

গত মাসে বাসায় বাথরুমে পড়ে গোড়ালিতে চোটপান ৭০ বছর বয়সী ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী। পরে ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি হলেচিকিৎসকরা তাকে জানান, গোড়ালির একটি হাড় স্থানচ্যুত হয়েছে।

এই মুক্তিযোদ্ধা, ভাস্কর দীর্ঘদিন উচ্চরক্তচাপে ভুগছেন। তার রক্তে পটাসিয়াম ও হিমোগ্লোবিন একেবারেই কম বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

১৯৪৭ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি খুলনায় জন্মফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর। ১৯৭১ সালে তিনি পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে নির্যাতিত হন।

স্বাধীনতা যুদ্ধে তার অবদানের জন্য ২০১৬সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে মুক্তিযোদ্ধা খেতাব দেয়। এর আগে ২০১০ সালে তিনি বাংলাদেশেরসর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান স্বাধীনতা পদক পান।

২০১৪ সালে একুশের বইমেলায় তার আত্মজৈবনিকগ্রন্থ ‘নিন্দিত নন্দন’ প্রকাশিত হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক