দুর্নীতির ধারণা সূচকে দুই ধাপ পেছাল বাংলাদেশ

বিশ্বের ১৮০টি দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান এবার ১৪৯ নম্বরে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 07:52 AM
Updated : 30 Jan 2024, 07:52 AM

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের বিচারে গত এক বছরে বাংলাদেশে দুর্নীতি পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। তাদের বৈশ্বিক সূচকে বাংলাদেশের অবস্থানের দুই ধাপ অবনমন ঘটেছে।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের প্রকাশিত দুর্নীতির ধারণা সূচকের (সিপিআই) ঊর্ধ্বক্রম অনুযায়ী (ভালো থেকে খারাপ) বিশ্বের ১৮০টি দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান এবার ১৪৯ নম্বরে। গতবার এ তালিকায় বাংলাদেশ ১৪৭ নম্বরে ছিল।

আবার অধঃক্রম অনুযায়ী (খারাপ থেকে ভালো) বিবেচনা করলে বাংলাদেশ অবস্থান এবার ১৮০ দেশের মধ্যে দশম, যেখানে গতবছর ছিল দ্বাদশ অবস্থানে।

১০০ ভিত্তিতে এই সূচকে বাংলাদেশের স্কোর এক বছরে দুই পয়েন্ট কমে হয়েছে ২৪। এই স্কেলে শূন্য স্কোরকে দুর্নীতির ব্যাপকতার ধারণায় সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত এবং ১০০ স্কোরকে সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্ত বা সর্বোচ্চ সুশাসনের দেশ হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

বিশ্বের ১৮০টি দেশ ও অঞ্চলের ২০২৩ সালের দুর্নীতির পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে বার্লিনভিত্তিক সংস্থা টিআই মঙ্গলবার তাদের এই বার্ষিক সূচক প্রকাশ করে।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান রাজধানীর ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে টিআইবি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এবারের প্রতিবেদনের বিভিন্ন দিক এবং বাংলাদেশের দুর্নীতির পরিস্থিতি তুলে ধরেন।

এই সূচকে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের চেয়ে বাজে অবস্থায় আছে কেবল মিয়ানমার ও আফগানিস্তান। ২০ স্কোর নিয়ে দেশ দুটি ঊর্ধ্বক্রম অনুযায়ী (ভাল থেকে খারাপ) রয়েছে তালিকার ১৬২ নম্বরে।

গতবারের মতই দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছে ভুটান। ৬৮ স্কোর নিয়ে ভুটানের অবস্থান সূচকের ঊর্ধ্বক্রম অনুযায়ী ২৬ নম্বরে। এরপর ভারত ও মালদ্বীপ ৯৩ (স্কোর ৩৯), নেপাল ১০৮ (স্কোর ৩৫), শ্রীলঙ্কা ১১৫ (স্কোর ৩৪), পাকিস্তান ১৩৩তম (স্কোর ২৯) ।

২৪ স্কোরে বাংলাদেশের সঙ্গে সূচকের একই অবস্থানের রয়েছে ইরান, লেবানন ও জিম্বাবুয়ে।

সূচক বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১২ সাল থেকে এবারই বাংলাদেশের স্কোর সবচেয়ে কম। অর্থাৎ, দুর্নীতি পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের অবস্থান এক দশকের মধ্যে এখনই সবচেয়ে বাড়ে।

এই সময়ের মধ্যে ২০১৪ ও ২০১৫ সালে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ২৫, কিন্তু ২৪ এ কখনো নামেনি। আর ২০১৭ সালের ২৮ ছিল বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোর।

টিআই এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, এবারের সূচকে ১৮০টি দেশের গড় স্কোর গতবারের মতই ৪৩। তালিকায় এবার সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় আছে আফ্রিকার দেশ সোমালিয়া; তাদের স্কোর ১১।

এরপরে রয়েছে যথাক্রমে ভেনেজুয়েলা, সিরিয়া, সাউথ সুদান, ইয়েমেন, উত্তর কেরিয়া, নিকারাগুয়া, হাইতি, ইকুয়েটোরিয়াল গিনি ও তুর্কমেনিস্তান।

অন্যদিকে সর্বোচ্চ ৯০ স্কোর নিয়ে গতবারের মতই তালিকায় সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে ডেনমার্ক। এর পরে রয়েছে ফিনল্যান্ড, নিউ জিল্যান্ড, নরওয়ে, সিঙ্গাপুর, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, জার্মানি ও লুক্সেমবুর্গ।