দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টি বাড়বে, জোয়ার আনবে লঘুচাপ

সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্কতা সঙ্কেত বহাল রয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 August 2022, 11:19 AM
Updated : 10 August 2022, 11:19 AM

মৌসুমী বায়ু সক্রিয় হয়ে ওঠার মধ্যে বঙ্গোপসাগরে রয়েছে একটি লঘুচাপ। এর ফলে বৃষ্টি বাড়ার সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলে স্বাভাবিকের চেয়ে উঁচু জোয়ারের শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে।

লঘুচাপটি সৃষ্টি হওয়ার পরপরই সোমবার দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্কতা সঙ্কেত জারি করা হয়। তা বুধবারও দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ভারতের ওড়িষা উপকূল ও তৎসংলগ্ন এলাকার অদুরে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সোমবার লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। পরে সুষ্পষ্ট লঘুচাপ হয়ে এটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়।

এটি আগে স্থল নিম্নচাপ ছিল জানিয়ে আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক বলেন, স্থল নিম্নচাপটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে বর্তমানে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে ভারতের ছত্তিশগড় ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

“এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও দেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে এবং সমুদ্রবন্দরে বয়ে যাচ্ছে ঝড়ো হাওয়া।”

এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেখাতে বলা হয়েছে।

Also Read: সাগরে লঘুচাপ, বন্দরে ৩ নম্বর সঙ্কেত

আবহাওয়াবিদ ফারুক বলেন, সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও বায়ুচাপের আধিক্যের প্রভাবে উপকূলের সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সংশ্লিষ্ট দ্বীপ ও চরের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ২-৪ ফুট বেশি উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

ইতোমধ্যে ঝালকাঠির বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বেড়েছে। জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চেয়ে পাঁচ ফুট বেড়ে তলিয়ে গেছে নদী পাড়ের ১৫ গ্রাম।

শ্রাবণের শেষ সময়ে এসে মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকায় দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে বলেও জানান আবহাওয়াবিদ ফারুক।

গত ২৪ দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে টেকনাফে ৫৩ মিলিমিটার।

আবহাওয়ার বৃহস্পতিবারের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী ও ঢাকার কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকাসহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক