নিবন্ধন ছাড়া চলবে না কোনো বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

আগামী সাত দিনের মধ্যে এ বিষয়ে পরিপত্র জারি করা হবে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Feb 2024, 12:46 PM
Updated : 10 Feb 2024, 12:46 PM

নিবন্ধন ও অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি ছাড়া কোনো বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চালানো যাবে না। যেসব বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিবন্ধন নেই, নিবন্ধন নিতে তাদের তিন মাস সময়ে দেওয়া হবে।

সচিবালয়ে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব ফরিদ আহাম্মদ এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, নিবন্ধন ছাড়া এবং অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি ছাড়া কোনো বেসরকারি পর্যায়ের প্রাথমিক বিদ্যালয় চলবে না। ইংলিশ মিডিয়াম ছাড়াও কিন্ডার গার্টেন, নার্সারি স্কুল এবং হাই স্কুলের সঙ্গে প্রাইমারিসহ সকল বেসরকারি স্কুলের নিবন্ধন ও অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি প্রয়োজন হবে।

আগামী সাত দিনের মধ্যে এ বিষয়ে পরিপত্র জারি করা হবে জানিয়ে গণশিক্ষা সচিব বলেন, “এটা জারি করে দিলে আমাদের প্রাথমিক পর্যায়ে বেসরকারি যে স্কুলগুলো আছে কিন্ডার গার্টেন, নার্সারি স্কুল, ইংলিশ ভার্সন অথবা হাই স্কুলের সঙ্গে যে প্রাইমারি বা আলাদা প্রাইমারি, এগুলো একটা নির্দিষ্ট নিয়মনীতির আওতায় আসবে। এসআরও নম্বরের জন্য আমরা আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি।”

সচিব বলেন, দেশে ৪৭ হাজারের মেতা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ৯০ শতাংশের নিবন্ধন নেই।

অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি পেতে আবেদন করার ৩০ দিনের মধ্যে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তদন্ত করে প্রতিবেদন দেবেন। ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে জেলা প্রাথমিক কর্মকর্তা পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত দেবেন।

আর নিবন্ধন পেতে আবেদন করার পর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তদন্ত করে রিপোর্ট দেবেন। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার মাধ্যমে তা বিভাগীয় পর্যায়ের আসার পর সেখানার ডিডি নিবন্ধন দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন।

প্রাথমিকভাবে তিন বছরের জন্য অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি এবং এক বছরের জন্য নিবন্ধন দেওয়া হবে। সরকারের বেধে দেওয়া সব শর্ত পূরণ করতে পারলে নিবন্ধন বা অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতির মেয়াদ বাড়ানো হবে। আর তা না হলে স্বীকৃতি বাতিল করা হবে।

গণশিক্ষা সচিব বলেন, “আমরা চাইব, আগামী ১ জানুয়ারি থেকে নিবন্ধনবিহীন ও একাডেমিক স্বীকৃতি ছাড়া কোনো প্রাইমারি স্কুল যেন না চলে।”

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)