পূরবী বসুর কবিতা: রাই

পূরবী বসু
Published : 26 April 2022, 04:06 PM
Updated : 26 April 2022, 04:06 PM


বহু দিন পর আজ তোমার সংগে দেখা।
উসকো খুসকো চুলে রূপালী বিজলী রেখা।
কাঁচের ভারি চশমা চোখে,
স্বল্প শশ্রু, স্মিত হাসি মুখে,
রাস্তা পেরিয়ে ছুটে এলে চলে।
অপলক চোখে আমাকে দেখলে।
"কেমন আছো তুমি?"
হাসি আমি। "ভালো! তুমি"?
"আর বল কেন? তিন কন্যার বাপ,
অফিসে ভীষণ কাজের চাপ।
মাথা তোলাই যে ভার।
থাক না আমার কথা এবার।"
আমি তাকে বুঝি, অন্য কথাই খুঁজি
মিজের কথা বলতে দ্বিধা এমন সোজাসুজি
"আকাশের রঙটা দেখেছ আজ"?
"পাগল! সময় কোথায়? কত কাজ।
সার্টের রঙ-ও দেখি না আজকাল।
তফাৎ বুঝি না সকাল কি বিকাল।"
"আমি কিন্তু রোজ আকাশ দেখি,
মেঘ বিদ্যুতের দাপাদাপি সেকি!
হাতের ছাতাটা পুরান; আর বেশিদিন নাই।
তাই বুঝি প্রতিদিন নীলাকাশ চাই।
আচ্ছা, তোমার বৃষ্টি ভালোলাগে এখনো?"
"জানি না। দেখি নাই বহুকাল বর্ষা সঘণ।
তবে মনিটরে চোখ রেখে জলের শব্দ শুনি
ঝম ঝম ঝম। কখনো বা ঘণঘটার ধ্বণি।
ভাবি, মেঘমল্লার তুমি নাচিতেছ রাই হয়ে।
হয়তো কোথাও কাছে, ডাইনে কিংবা বাঁয়ে।"

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক