রুশ যুদ্ধবিরোধী ব্যান্ডদল থাইল্যান্ডে গ্রেপ্তার

এই রক ব্যান্ড দলের নাম বিআই-২। মস্কোয় এ দলটি সমালোচনার শিকার। থাই সরকার দলটিকে রাশিয়ায় ফেরত পাঠাতে পারে বলে জানিয়েছেন মানবাধিকার কর্মীরা।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 04:15 PM
Updated : 30 Jan 2024, 04:15 PM

যুদ্ধবিরোধী একটি রাশিয়ান-বেলারুশিয়ান রক ব্যান্ডদল থাইল্যান্ড ট্যুরে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছে। থাই সরকার দলটিকে রাশিয়ায় ফেরত পাঠাতে পারে বলে জানিয়েছেন মানবাধিকার কর্মীরা।

ব্যান্ডদলটির নাম বিআই-২। মস্কোয় এ দলটি সমালোচনার শিকার। তাই এই ব্যান্ডদলকে রাশিয়ায় না পাঠানোর জন্য থাইল্যান্ড সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)।

তারা বলছে, রাশিয়ায় পাঠানো হলে ৭ সদস্যের এই রক ব্যান্ডদলটি নিপীড়নের শিকার হতে পারে।

থাইল্যান্ডের রিসোর্ট দ্বীপ ফুকেট ভ্রমণের সময় বিআই-২ ব্যান্ডদলটি অনুমতি না নিয়ে সঙ্গীতানুষ্ঠান করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে। ফুকেটে হাজার হাজার রুশ পর্যটক সমাগম হয়ে থাকে।

বিবিসি জানায়, ব্যান্ডদলটি এখন থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে আটক আছে। তবে থাই কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে এখনও প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য করেনি কিংবা বিবিসি’র প্রশ্নে কোনও সাড়া দেয়নি।

বিআই-২ এর অফিসিয়াল ফেইসবুক পাতায় এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত ২৬ জানুয়ারিতে যথাযথ অনুমতি না নিয়ে লাইভ সঙ্গীত অনুষ্ঠান করার ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তারা থাইল্যান্ড থেকে বিতাড়িত হওয়ার মুখে আছে। নিয়মভঙ্গের জন্য দলটি জরিমানা দিয়েছে বলেও জানিয়েছে।

তবে ব্যান্ডদলটির কিছু সমর্থক ওই পোস্টে করা মন্তব্যে অভিযোগ তুলে বলেছেন, বিআই-২ কে নিশানা করা হয়েছে। রুশ কর্তৃপক্ষ তাদেরকে আটক করার অজুহাত খুঁজে পেয়েছে।

ব্যান্ডদলটি তাদের বিবৃ্তিতে এও বলেছে যে, “আমাদেরকে আটকের ঘটনার ক্ষেত্রে বাইরের চাপ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। আমরা জানি, এই চাপের কারণ হচ্ছে- আমাদের সৃজনশীলতা, দৃষ্টিভঙ্গি এবং অবস্থানের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ।”

ব্যান্ডদলটির ৭ সদস্যের কয়েকজন অস্ট্রেলিয়া এবং ইসরায়েলেরও দ্বৈত নাগরিক। ফলে তাদেরকে সেসব দেশেও পাঠানো হতে পারে। তবে মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, অন্তত দুইজন সদস্যের কেবল রাশিয়ার নাগরিকত্ব আছে। তাদেরকে রাশিয়ায় পাঠানো হতে পারে।

রাশিয়া কর্তৃপক্ষ এখনও এই ব্যান্ডদলটির বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি এবং তারা দলটিকে দেশে ফেরত নিতে চাইছে কিনা তাও জানায়নি।