ভারতে কংগ্রেসের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ, সমালোচনার মুখে আবার মুক্ত

কংগ্রেস নেতাদের অভিযোগ, নির্বাচনি বণ্ড বাতিল হওয়ার পরই ভারতীয় জনতা পার্টি ক্ষেপে উঠেছে। সেকারণে বিরোধী দলকে নিশানা করেছে মোদী সরকার।

নিউজ ডেস্ক
Published : 16 Feb 2024, 01:57 PM
Updated : 16 Feb 2024, 01:57 PM

ভারতের কংগ্রেস পার্টি গুরুতর অভিযোগ করেছে আয়কর বিভাগের বিরুদ্ধে। দিল্লিতে দলের জাতীয় মুখপাত্র অজয় মাকেন অভিযোগ করেন, কংগ্রেসের চারটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করে দিয়েছে আয়কর দপ্তর। একাধিক চেক ফেরত আসায় বৃহস্পতিবার দল বিষয়টি জানতে পেরেছে।

মাকেন অভিযোগ করেন, লোকসভা নির্বাচনের মুখে কংগ্রেসকে বিপাকে ফেলতে আয়কর দফতর এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

কেন আয়কর দফতর এমন পদক্ষেপ নিয়েছে সে প্রশ্নে কংগ্রেস মুখপাত্রের দাবি, আয়কর দপ্তরের বক্তব্য, কংগ্রেসের কাছে ২১০ কোটি রূপি আয়কর প্রাপ্য। সেই অর্থ পরিশোধ না করাতেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, যা নজিরবিহীন।

মাকেনের বক্তব্য, আয়কর দপ্তরের দাবি নিয়ে তারা আইনি পথে লড়ছিলেন। হঠাৎ বিনা নোটিশে ব্যাংক অ্যাকাউন্টের লেনদেন বন্ধ করা হয়। ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয় যুব কংগ্রেসেরও।

কংগ্রেস নেতাদের অভিযোগ, ইলেক্টোরাল বন্ড বা নির্বাচনি বণ্ড বাতিল হওয়ার পরই ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ক্ষেপে উঠেছে। সেকারণে বিরোধী দলকে নিশানা করেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার।

লোকসভা নির্বাচনের আগে দিয়ে কংগ্রেসের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দের এমন ঘটনায় বিজেপি বিরোধীদলকে নিশানা করছে। নির্বাচনের আগেই কার্যত কংগ্রেসের সমস্ত আর্থিক কার্যকলাপ অচল করে দেওয়া হচ্ছে।

এটি গণতন্ত্রের ওপর গভীর আক্রমণ বলে সমালোচনার ঝড় ওঠার পর এর জেরে আবার স্বাভাবিক হয় কংগ্রেসের চারটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট।