মেক্সিকোয় বড় ধরনের ভূমিকম্প, নিহত ২

যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কীকরণ কেন্দ্র মেক্সিকো উপকূলের কয়েকটি অংশের জন্য সতর্কতা জারি করেছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Sept 2022, 03:49 AM
Updated : 20 Sept 2022, 03:49 AM

মেক্সিকোয় দুটি ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্পের বার্ষিকীতে শক্তিশালী আরেকটি ভূমিকম্পে অন্তত ২ জন নিহত, ভবন ক্ষতিগ্রস্ত, বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পাশাপাশি রাজধানী মেক্সিকো সিটির আতঙ্কিত বাসিন্দাদের নিরাপত্তার জন্য বাইরে বের হতে বাধ্য করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, স্থানীয় সময় ১৯ সেপ্টেম্বর, সোমবার রাত ১টার একটু পর দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলের কাছে কোলিমা রাজ্যের পাশে মিচোয়াকানের সীমান্তবর্তী এলাকায় ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পটি হয়।

মেক্সিকোর সরকার জানিয়েছে, প্রশান্ত মহাসাগরীয় বন্দর শহর মানসানিওতে একটি ডিপার্টমেন্ট স্টোরের ছাদ ধসে পড়ে একজন নিহত হয়েছে। অপরজনকে একটি মার্কেটে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই মার্কেটের ছাদ উপরের তলার একটি জিমে ধসে পড়েছে আর মানুষ সাহায্যের জন্য চিৎকার করছে।

ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থলের কাছে মিচোয়াকান রাজ্যের বেশ কয়েকটি হাসপাতাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। এসব হাসপাতালের একটিতে ভেঙ্গে পড়া কাচের আঘাতে এক ব্যক্তি আহত হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির কেন্দ্রস্থল মেক্সিকোর জনবিরল এলাকায়।

ভূমিকম্পটির উৎপত্তি ভূপৃষ্ঠের মাত্র ১৫ কিলোমিটার গভীরে, এতে এর তীব্রতা বেশি অনুভূত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কীকরণ কেন্দ্র মেক্সিকো উপকূলের কয়েকটি অংশের জন্য সতর্কতা জারি করে বলেছে, সেসব স্থানে জোয়ারের পানির স্তর থেকে ১ থেকে ৩ মিটার উঁচু ঢেউ বয়ে যেতে পারে।

মেক্সিকো সিটির মেয়র ক্লদিয়া শেইনবাউম জানিয়েছেন, ভূমিকম্পটির পর রাজধানীতে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তাৎক্ষণিভাবে খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে ১৯৮৫ ও ২০১৭ সালে এই একই দিনে মেক্সিকোতে দুটি ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্প হয়েছিল।

“এটা একটা অভিশাপের মতো মনে হচ্ছে,” বলেছেন মেক্সিকো সিটির কেন্দ্রস্থলীয় রোমা এলাকার গ্রাফিক্স ডিজাইনার ইসা মন্তেস (৩৪) । তিনি যখন একথা বলছিলেন তখন মাথার উপরে বেশ কয়েকটি হেলিকপ্টার উড়ছিল, তারা শহর জরিপ করছিল।

উচ্চশিক্ষায় মেক্সিকোর মর্যাদাপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি দ্য ন্যাশনাল অটোনোমাস ইউনিভার্সিটি অব মেক্সিকো (ইউএনএএম) জানিয়েছে, একই দিনে তিনটি বড় ধরনের ভূমিকম্প হওয়ার কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই। এ ঘটনাকে তারা পুরোপুরি কাকতালীয় বলে অভিহিত করেছে।

কিন্তু অন্যরা এটি পুরোপুরি বিশ্বাস করেননি।

মেক্সিকো সিটির কোয়াওতেমক বরোর এক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের মালিক আর্নেস্টো লানছেতা বলেন, “এটি একটি তারিখ, এই ১৯ তারিখে কিছু আছে। ১৯ তারিখ একটি ভয়ের দিন।”

১৯৮৫ সালের ১৯ সেপ্টেম্বরের ভূমিকম্পে কয়েক হাজার লোক নিহত হয়েছিল আর ২০১৭-র ১৯ সেপ্টেম্বরের ভূমিকম্পে ৩৫০ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

মানসানিওতে প্রথম মৃত্যু কথা ঘোষিত হওয়ার আগে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর জানান, ভূমিকম্প কেন্দ্রের কাছে সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ছবিতে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত অনেক ভবন দেখা গেছে।

মেক্সিকোর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্প হওয়ার প্রায় দুই মিনিট আগে সতর্কতা সঙ্কেত শোনা যায় আর এতে লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে খোলা জায়গায় বের হতে পেরেছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক