বন্দরে হামলার পরও শস্য রপ্তানির প্রস্তুতি নিচ্ছে ইউক্রেইন

ওদেসা বন্দরে রাশিয়ার হামলাকে ‘বর্বরতা’ বললেও এখনও আশা ছাড়েনি কিইভ। তারা শস্য রপ্তানি করতে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছে।

রয়টার্স
Published : 24 July 2022, 03:02 PM
Updated : 25 July 2022, 05:49 AM

যুদ্ধের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া ইউক্রেইনের শস্য রপ্তানি পুনরায় চালু করতে একটি চুক্তি সই করার কয়েকঘণ্টার মধ্যে ওদেসা বন্দরে রাশিয়ার হামলাকে ‘বর্বরতা’ বললেও এখনও আশা ছাড়েনি কিইভ। তারা শস্য রপ্তানি করতে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছে।

বিশ্বের শীর্ষ শস্য রপ্তানিকারক দেশগুলোর ‍অন্যতম ইউক্রেইন। গত ফেব্রুয়ারিতে আগ্রাসন শুরুর পর রাশিয়া প্রথমেই কৃষ্ণ সাগরে ইউক্রেইনের বন্দরগুলোর দখল নিয়ে নেয়। এতে বন্ধ হয়ে যায় দেশটির রপ্তানি। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে বিশ্ববাজারে।

তুরস্কের উদ্যোগে দুইমাস ধরে চেষ্টার পর গত শুক্রবার শস্য রপ্তানি বিষয়ে চুক্তি সই করে ইউক্রেইন ও রাশিয়া। তুরস্ক এবং জাতিসংঘও ওই চুক্তি সই করেছে।

কিন্তু শনিবার ভোরেই ইউক্রেইনের অন্যতম সমুদ্র বন্দর ওদেসাকে লক্ষ্য করে দুইবার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রাশিয়া। এতে চুক্তি বাস্তবায়ন নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়েছে।

রাশিয়া অবশ্য হামলার চালানোর কথা স্বীকার করেছে। বলেছে, তারা ইউক্রেইনের একটি জাহাজকে নিশানা করে ওই হামলা চালিয়েছিল।

ইউক্রেইনের কর্মকর্তারাও একটি জাহাজে হামলা হওয়ার কথা জানিয়েছেন। তবে সেটি সামরিক নাকি পণ্যবাহী জাহাজ সে সম্পর্কে কিছু বলেনি।

হামলার পর ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, এ হামলাই প্রমাণ করেছে চুক্তিতে অটল থাকার ব্যাপারে রাশিয়াকে বিশ্বাস করা যায় না।

তারপরও দেশটি শস্য রপ্তানি পুনরায় শুরু করার প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান একজন মন্ত্রী। রাশিয়ার হামলায় বন্দরের বড় ক্ষতি হয়নি বলেও নিশ্চিত করেছে ইউক্রেইনের সেনাবাহিনী।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক