জরিমানা দিতে না পারলে ট্রাম্পের সম্পদ জব্দের হুঁশিয়ারি

সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্টকে প্রতারণার মামলায় গত সপ্তাহে ৩৫ কোটি ৪৯ লাখ ডলার জরিমানা করে নিউ ইয়র্কের একটি আদালত।

রয়টার্স
Published : 21 Feb 2024, 05:22 PM
Updated : 21 Feb 2024, 05:22 PM

প্রতারণার মামলায় আদালত যে জরিমানা করেছে তা দিতে না পারলে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সম্পদ জব্দ করার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশা জেমস।

এবিসি নিউজকে তিনি বলেন, “আদালতের আদেশ মোতাবেক, তার (ট্রাম্প) যদি জরিমানা পরিশোধের তহবিল না থাকে, তাহলে আমরা তা বাস্তবায়নের ব্যবস্থা নেব এবং তার সম্পদ জব্দ করার জন্য বিচারকের কাছে আবেদন জানাব।”

ট্রাম্পকে নিজের সম্পদের মূল্য বাড়িয়ে দেখানোর মাধ্যমে ঋণদাতাদের সঙ্গে প্রতারণা করার দায়ে গত সপ্তাহে ৩৫ কোটি ৪৯ লাখ ডলার জরিমানা করে নিউ ইয়র্কের একটি আদালত।

ম্যানহ্যাটনে তিন মাস ধরে চলা এ দেওয়ানি মামলার বিচারের রায়ে ট্রাম্পকে তিন বছরের জন্য নিউ ইয়র্কে কোনো কর্পোরেশনের পরিচালক বা কর্মকর্তা হওয়ার বিষয়েও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। 

ট্রাম্প ভুল কোনওকিছু করার কথা অস্বীকার করেছেন এবং এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করছেন বলে জানিয়েছেন। ডেমোক্র্যাট অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশা জেমস পক্ষপাতিত্ব করছেন বলে অভিযোগও করেছেন ট্রাম্প।

মামলার রায়ের বিরুদ্ধে আপিলে ট্রাম্প একথা বলতে পারেন যে, সম্পদ বাড়িয়ে দেখানোয় আদতে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।

তবে লেটিশা মনে করেন, “অর্থনৈতিক প্রতারণায় কেউ না কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ট্রাম্প বিরাট এক প্রতারণায় জড়িত ছিলেন। এটি মামুলি কোনও ভুল ছিল না।”

লেটিশা জেমস এই প্রতারণা মামলা দায়ের করেছিলেন। অভিযোগ ছিল, ট্রাম্প ও তার পরিবারিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ট্রাম্প অর্গানাইজেশন ঋণের শর্তে সুবিধা পাওয়ার জন্য এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ব্যাংকারদের ধোঁকা দিয়ে বছরে তার মোট সম্পদের মূল্য প্রায় ৩৬০ কোটি ডলার বেশি দেখিয়েছেন।