প্রধানমন্ত্রিত্ব ছাড়ছেন নিউ জিল্যান্ডের জেসিন্ডা অরডার্ন

চোখের পানি সংবরণ করে তিনি জানান, তিনি কেবল একজন মানুষ এবং তার সরে দাঁড়ানো দরকার।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Jan 2023, 04:09 AM
Updated : 19 Jan 2023, 04:09 AM

সবাইকে অবাক করে প্রধানমন্ত্রিত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অরডার্ন ।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে অরডার্ন (৪২) জানান, দেশের নেতৃত্ব দেওয়া অব্যাহত রাখতে তিনি আর ‘সমর্থন চাইবেন না’ এবং ফেব্রুয়ারির প্রথমদিকেই পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন আর পরবর্তী নির্বাচনে প্রার্থীও হবেন না।

চোখের পানি সংবরণ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করা সাড়ে পাঁচ বছর কঠিন সময় ছিল এবং তিনি কেবল একজন মানুষ এবং তার সরে দাঁড়ানো দরকার।

“এই গ্রীষ্মে, আমি শুধুমাত্র আরেকটি বছরের জন্য না, আরেকটি মেয়াদের জন্য প্রস্তুত হওয়ার একটি উপায় খুঁজে পাওয়ার আশা করেছিলাম- কারণ এই বছরের জন্য এটিই প্রয়োজন। আমি তা করতে পারিনি,” বলেন তিনি।

“আমি জানি এই সিদ্ধান্তের পর এর তথাকথিত ‘প্রকৃত’ কারণ কী ছিল তা নিয়ে অনেক আলোচনা হবে…কিন্তু আপনারা যা পাবেন তা হল বড় কিছু চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে ছয় বছর পার করার পরেও আমি মানুষ।

“রাজনীতিকরা মানুষ। আমরা যতটা পারি, যতদিন পারি, সবই দেই তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় আসে। আর আমার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসে গেছে।”

নিউ জিল্যান্ডের ক্ষমতাসীন লেবার পার্টির নতুন নেতা নির্বাচনের জন্য রোববার ভোট হবে। দলটির নেতা আগামী নির্বাচন পর্যন্ত দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করবেন। নেতা হিসেবে অরডার্নের মেয়াদ ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শেষ হবে আর ১৪ অক্টোবর দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

অরডার্ন বলেন, আসছে নির্বাচনে লেবার পার্টিই জয়ী হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

নিউ জিল্যান্ডর উপপ্রধানমন্ত্রী গ্রান্ড রবার্টসন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, পরবর্তী লেবার নেতা হওয়ার দৌঁড়ে নামতে চান না তিনি।

রাজনীতি বিশ্লেষক বেন টমাস বলেছেন, অরডার্নের ঘোষণা বিরাট এক বিস্ময়, কারণ ২০২০ এর নির্বাচনের সময় দেখা তার দলের আকাশচুম্বি জনপ্রিয়তা পরবর্তীতে হ্রাস পেলেও দেশের পছন্দের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সবগুলো জরিপে এগিয়ে আছেন তিনি।

অরডার্নের পরিষ্কার কোনো উত্তরাধিকারী নেই বলে জানিয়েছেন টমাস।

অরডার্ন জানিয়েছেন, কাজ কঠিন ছিল এর জন্য সরে দাঁড়াচ্ছেন না তিনি, বরং অন্যরা আরও ভালো করবে বলে মনে করেন তিনি।

চলতি বছর অরডার্নের কন্যা নেভের স্কুলজীবন শুরু হবে। ওই সময় তিনি কন্যার পাশে থাকার জন্য উন্মুখ হয়ে আছেন, এখন নেভেকে এটি বলতে পারবেন এবং দীর্ঘদিনের জীবনসঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ডকে ‘এখন তাদের বিয়ে করার সময় হয়েছে’ বলে জানাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক