এলজিবিটি প্রচারণার ‘অপরাধে’ রাশিয়ায় জরিমানা টিকটকের

প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর সঙ্গে মস্কোর দীর্ঘদিনের বিরোধকে চিহ্নিত করে এইসব জরিমানা। এর মধ্যে আছে কনটেন্ট, ডেটা স্টোরেজের দাবি ও কয়েকটি সরাসরি নিষেধাজ্ঞা।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Oct 2022, 12:31 PM
Updated : 5 Oct 2022, 12:31 PM

এলজিবিটি প্রচারণা নিয়ে ‘আইন লঙ্ঘনে’র অভিযোগে টিকটককে জরিমানা করেছে রাশিয়া। এ ছাড়া, ইউক্রেইনের এক রাজনৈতিক নেতার সাক্ষাৎকারকে ‘ভুল তথ্য’ আখ্যা দিয়ে স্ট্রিমিং সেবা টুইচকেও জরিমানা করেছে দেশটি।

রাশিয়ার সংবাদমাধ্যম ‘ইন্টারফ্যাক্স’-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, আদালতে এই কার্যক্রম বন্ধ করার অনুরোধ করেছেন এক টিকটক মুখপাত্র। তবে, এর অতিরিক্ত কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি তারা।

মঙ্গলবারের জরিমানা সম্পর্কে রয়টার্স কোম্পানি দুটোর মন্তব্য জানতে চাইলে কারও কাছ থেকেই তাৎক্ষণিক উত্তর মেলেনি।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিভিন্ন প্রযুক্তি জায়ান্টের সঙ্গে মস্কোর দীর্ঘদিনের বিরোধকে চিহ্নিত করে এইসব জরিমানা। এর মধ্যে আছে কনটেন্ট নিয়ে জরিমানা, ডেটা স্টোরেজের দাবি করা ও কয়েকটি সরাসরি নিষেধাজ্ঞা।

লেসবিয়ান, গে, বাইসেক্সুয়াল ও ট্রান্সজেন্ডার ব্যক্তিরা নিজেদের একসঙ্গে সংক্ষেপে এলজিবিটি বলেন।

বেইজিংয়ের আইটি কোম্পানি বাইটড্যান্স মালিকানাধীন ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটককে ৩০ লাখ রুবল (৫১ হাজার ডলার) জরিমানা করেছে মস্কোর ‘টাগানস্কি ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট’।

বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, টিকটকের বিরুদ্ধে এই মামলার কারণ প্ল্যাটফর্মে ‘অপ্রথাগত মূল্যবোধ, এলজিবিটি ও নারীবাদ’ প্রচারণার পাশাপাশি প্রথাগত যৌন মূল্যবোধের ‘বিকৃত উপস্থাপনা’।

অন্যদিকে, অ্যামাজন মালিকানাধীন টুইচকে ৪০ লাখ রুবল (৬৮ হাজার ডলার) জরিমানা করেছে দেশটি।

বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা বলছে, ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কির পরামর্শক অলেকসি অ্যারেস্টোভিচের সাক্ষাৎকার নেওয়ার কারণেই টুইচের ওপর চড়াও হয়েছে দেশটি।

এ বছরের শুরুতে অ্যারেস্টোভিচের আরেকটি সাক্ষাৎকার নেওয়ার অভিযোগে টুইচকে ৩০ লাখ রুবল জরিমানা করেছিল রাশিয়া।

ইউক্রেইনে সামরিক আগ্রাসন শুরুর পর মার্চের শুরুতে একটি আইন পাশ করে রাশিয়া, যেখানে সামরিক বাহিনীকে ‘অসম্মান’ করলে সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে। এই আইন লঙ্ঘনের বিপরীতে বিভিন্ন বিদেশী প্রযুক্তি কোম্পানিকে সতর্ক করেছিল রাশিয়া।

রাশিয়ার বিবেচনায় ইউক্রেইনে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ সম্পর্কে ভুল তথ্য না মোছার অভিযোগে আরও দুটি জরিমানার মুখে পড়বে টুইচ, যা গিয়ে ঠেকতে পারে ৮০ লাখ রুবল পর্যন্ত। --মঙ্গলবার প্রতিবেদনে লিখেছে রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা ‘তাস’।

রাশিয়ার ‘এলজিবিটি প্রচারণা’ আইন

বিদ্যমান ‘সমকামী প্রচারণা’ আইনকে আরও বিস্তৃত করার কথা বিবেচনা করছে রাশিয়া। ২০১৩ সালে পাশ হওয়া এই আইনে শিশুর সঙ্গে সমকামী যৌন সম্পর্ক প্রচারকে দণ্ডযোগ্য অপরাধ হিসাবে চিহ্নিত করা আছে।

এখন দেশটির আইন প্রণেতারা বলছেন, এর আওতা আরও বাড়িয়ে প্রাপ্তবয়স্কদের কাছে প্রচারের বিষয়টিও এতে যোগ করা উচিত। পাশাপাশি, অপ্রাপ্তবয়স্কদের কাছে ‘এলজিবিটি প্রচারণা’ চালানোর ক্ষেত্রেও অর্থদণ্ড বাড়ানো উচিত।

রাশিয়ার সরকার বলছে, পশ্চিমাদের প্রচারিত এবং রাশিয়ার সঙ্গে যায় না, তথাকথিত এমন উদারনৈতিক মূল্যবোধের বিপরীতে নৈতিক অবস্থান রক্ষা করছে তারা। তবে বিভিন্ন মানবাধিকার কর্মীর ভাষ্যমতে, এই আইন ব্যাপকভাবে প্রয়োগ হয় রাশিয়ার ‘এলজিবিটি’ সম্প্রদায়কে ভয় দেখাতে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা ‘আরআইএ’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাশিয়ার সামরিক বাহিনী সম্পর্কে ‘ভুল তথ্য’ না মোছার অভিযোগে ৪০ লাখ রুবল জরিমানার মুখে পড়েছে অনলাইন বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ার তত্ত্বাবধায়ক ‘উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন’।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক