মেটা মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোন রাশিয়ার অপরাধী তালিকায়

২০২২ সালের মার্চে ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম নিষিদ্ধ করে রাশিয়া। একই বছরের অক্টোবরে কোম্পানিটিকে ‘জঙ্গি সংগঠন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে দেশটি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Nov 2023, 10:05 AM
Updated : 27 Nov 2023, 10:05 AM

মেটা মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোনকে জঙ্গিবাদ সংশ্লিষ্ট অপরাধীর তালিকায় যোগ করেছে রাশিয়া।

ফেইসবুকের মালিক কোম্পানি মেটার জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক হিসেবে স্টোন সুপরিচিত। রাশিয়ার বিরোধী শিবির ও কারাবিষয়ক স্বতন্ত্র ওয়েবসাইট মিডিয়াজোনা প্রতিবেদনে বলেছে, তাকে খুঁজছে রাশিয়ার ‘মিনিস্ট্রি অফ ইন্টারনাল অ্যাফেয়ার্স’।

২০২২ সালের মার্চে মেটাকে ‘চরমপন্থী’ কোম্পানি হিসেবে আখ্যা দিয়ে ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম নিষিদ্ধ করে রাশিয়া। একই বছরের অক্টোবরে কোম্পানিটিকে ‘জঙ্গি সংগঠন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে দেশটি।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেইনে সামরিক আগ্রাসন শুরুর পর থেকেই বিভিন্ন পশ্চিমা সামাজিক মাধ্যম, সংবাদ সংস্থা ও আন্দোলনকারীর ওপর ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে ক্রেমলিন।

মিডিয়াজোনার প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্টোনকে অনেকটা নিভৃতেই রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘ওয়ান্টেড’ তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে।

রাশিয়ার আরেক সংবাদ সংস্থা ‘তাস’ প্রতিবেদনে লিখেছে, ‘আর্টিকল অফ দ্য রাশিয়ান ক্রিমিনাল কোড’ নামে পরিচিত তালিকায় স্টোনের নাম যোগ করেছে মস্কো।

তবে, রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডেটাবেজে স্টোনের অপরাধ নিয়ে এখনও বিস্তারিত কিছু উল্লেখ করা হয়নি।

রাশিয়ার সরকার ও মেটার মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। এর আগে মেটা বলেছিল, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও ইউক্রেইনে তার সামরিক আগ্রাসন নিয়ে সমালোচনার সুযোগ দিতে তারা নিজেদের নীতিমালা শিথিল করছে।

এ নীতিমালা শিথিল করার মাধ্যমে নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে ‘রুশ আগ্রাসনকারীদের মৃত্যুকামনার’ মতো ঘৃণামূলক ও রাজনৈতিক বক্তব্য তুলে ধরার সুযোগ করে দিয়েছে মেটা।

রয়টার্স বলছে, কোনো রাজনৈতিক নেতার মৃত্যুকামনার অনুমতি তখনই দেওয়া হয়, যখন তিনি কোনো মানবতা বিরোধী অপরাধের সঙ্গে যুক্ত থাকেন। এ ক্ষেত্রে বিশ্বাসযোগ্যতার দুটি সূচক হল তার অবস্থান বা রাষ্ট্র পরিচালনার পদ্ধতি।

ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে ‘চরমপন্থী কার্যক্রম পরিচালনা’ ও ‘বিকল্প বাস্তবতা’ তৈরি করে রাশিয়ার নাগরিকদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ তুলেছে মস্কোর আদালত।

সে সময় মেটার আইনজীবি আদালতে বলেন, কোম্পানির ‘রাশিয়াফোবিয়া’ ও উগ্রবাদী কর্মকাণ্ড চালানোর অভিযোগের কোনো সত্যতা নেই।

২০২২ সালের এপ্রিলে মেটা সিইও মার্ক জাকারবার্গের রাশিয়ায় প্রবেশ করার ওপরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল দেশটি।

সম্প্রতি ইউক্রেইনের রাজধানী কিইভে ভারী মাত্রায় ‘কামিকাজি ড্রোন’ আক্রমণ করে রাশিয়া। রোববার ইউক্রেইনের কর্মকর্তারা বলেন, যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এটিই তাদের ওপর সবচেয়ে বড় ড্রোন হামলার ঘটনা।

এ আক্রমণে আহত হয়েছেন চারজন। এর পাশাপাশি, বেশ কিছু ভবনও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তবে, ইউক্রেইনের কর্মকর্তাদের দাবি, তারা ৭৫টি ড্রোন হামলার মধ্যে ৭৪টিই ঠেকিয়ে দিয়েছেন।

অন্যদিকে, রাশিয়ার কর্তৃপক্ষের দাবি, মস্কো অঞ্চলে সারা রাত বেশ কয়েক ডজন ড্রোন আক্রমণ চালানো হয়, যেখানে দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা অন্তত ২৪টি ড্রোন ঠেকিয়ে দিয়েছে।

এ প্রসঙ্গে মেটার মন্তব্য জানতে চেয়েছিল ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেন্ডেন্ট।