হোয়াটসঅ্যাপ, অ্যাপলকে টক্কর দেবে গুগলের ‘মেসেজেস’ অ্যাপ?

অনুসন্ধানে এমন সব কোডের খোঁজ মিলেছে, যেগুলো এখনও সক্রিয় নয়। এর মানে হচ্ছে, এইসব ফিচার নিয়ে এখনও কাজ চলছে ও অদূর ভবিষ্যতে এগুলো সম্ভবত আসবে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Sept 2022, 01:21 PM
Updated : 19 Sept 2022, 01:21 PM

‘আইওএস ১৬’ সংস্করণের সঙ্গে সঙ্গেই বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার দেখা গেছে অ্যাপলের মেসেজেস অ্যাপে। তবে, পিছিয়ে নেই গুগলও। অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য নিজস্ব ‘মেসেজেস’ অ্যাপে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ আপগ্রেড যোগ করছে কোম্পানিটি।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ৯টু৫গুগলের অনুসন্ধানে এমন সব কোডের খোঁজ মিলেছে, যেগুলো এখনও সক্রিয় নয়। এর মানে হচ্ছে, এইসব ফিচার নিয়ে এখনও কাজ চলছে ও অদূর ভবিষ্যতে এগুলো সম্ভবত আসবে।

নির্মাণাধীন পর্যায়ে থাকা এই সব আপগ্রেডের একটি হলো, মেসেজগুলোর মধ্যে নির্দিষ্ট কোনো বার্তার ‘রিপ্লাই’ পাঠানো। যারা হোয়াটসঅ্যাপ বা আইমেসেজ ব্যবহার করেন, তাদের জন্য এটি বুঝতে পারা কঠিন কিছু হবে না।

পাশাপাশি, কোনো বার্তার জবাব হিসেবে শীঘ্রই নিজের পছন্দের ‘ইমোজি’ পাঠানোর সুবিধা পেতে পারেন ব্যবহারকারী।

অডিও ও ছবি

গুগলের থলেতে আরও ‘জিনিসপত্র’ আছে। ‘মেসেজেস’ ফিচারে শীঘ্রই আসতে পারে ‘ভয়েস নোটস’কে ‘টেক্সট’-এ রূপান্তরের সুবিধা। উদাহরণ হিসেবে, ব্যবহারকারী মূল অডিও ক্লিপ না শুনেই সেটি লিখিত আকারে পেতে পারবেন। প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য মেসেজিং অ্যাপে এই সুবিধা তেমন একটা নেই।

নতুন ব্যবহারকারী টানতে নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়া গুগলের মেসেজিং অ্যাপের জন্য ‘বেশ ফলদায়ক’ হতে পারে এই ফিচার।

গুগল মেসেজিং অ্যাপের মধ্যে একটি নতুন ‘গ্যালারি ভিউ’ আনার ইঙ্গিত মিলেছে। পাশাপাশি এতে আসছে একটি ‘ভার্টিক্যাল লেআউট’, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীর পাঠানো বার্তার সঙ্গে ছবি জুড়ে দেওয়া তুলনামূলক সহজ হবে।

ব্যবহারকারীদের জন্য এই সব ফিচার কবে নাগাদ আসবে, সেই তারিখের কোনো ইঙ্গিত মেলেনি। তবে এটি আসতে বেশি সময় লাগা উচিত না বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট টেকরেডার।

৬ অক্টোবর, ‘পিক্সেল ৭’ উন্মোচনের দিনটি ব্যবহার করে কয়েকটি নতুন সফটওয়্যারের ঘোষণা দিতে পারে গুগল।

বিশ্লেষণ: মেসেজ নিয়ে ‘হাল ছাড়ছে না’ গুগল

২০২০-২১ সালে মেসেজিং অ্যাপ নিয়ে গুগলের কাজের ধরন দেখে অনেকেই বিভ্রান্ত হতে পারেন। ‘পিক্সেল’ এবং অন্যান্য বেশ কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ডিফল্ট হিসেবে আছে অ্যাপটি, যা ‘এসএমএস’ ও ‘এমএমএস’ ব্যবস্থাপনার কাজটি করে।

‘রিচ কমিউনিকেশন্স সার্ভিসেস (আরসিএস)’কেও সমর্থন করে এই অ্যাপ, যা ‘এসএমএস’-এর আপগ্রেডেড সংস্করণ।

‘আরসিএস’ গুগলের পণ্য না হলেও, এর উন্নয়ন ও গ্রহনযোগ্যতার পেছনে ব্যপক খরচ করছে গুগল। একটি ‘এসএমএস’কে তুলনামূলক উন্নত রূপে বদলে দেওয়ার পাশাপাশি ‘মেসেজ রিড রিসিপ্ট’-এর মতো ফিচার ও ‘জিফ’সহ সকল মিডিয়া ফাইল ফরম্যাট সমর্থন করে এটি।

আরসিএসে অ্যাপলের সমর্থন আদায়েও চাপ দিচ্ছে গুগল, তবে এটি বাস্তবায়নের জন্য সম্ভবত বেশ কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক