এবার ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা গুগলের

“আমাদের এমন কিছু সংখ্যক প্রতিভাবান মানুষকে বিদায় জানাতে হবে, যাদের নিয়োগে আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি ও কাজ করে আনন্দ পেয়েছি।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Jan 2023, 07:47 AM
Updated : 22 Jan 2023, 07:47 AM

বিশ্বের নতুন ‘অর্থনৈতিক বাস্তবতা’-কে কারণ দেখিয়ে কোম্পানির সামগ্রিক কর্মশক্তির ছয় শতাংশ বা ১২ হাজার কর্মী ছাটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে সার্চ ও বিজ্ঞাপন জায়ান্ট গুগল।

মাইক্রোসফট, অ্যামাজন ও মেটার মতো প্রযুক্তি জায়ান্টদের হাজার হাজার কর্মী ছাটাইয়ের পরপরই গুগলের এই বিশাল ছাঁটাই কার্যক্রম এলো।

গুগলের মালিক কোম্পানি অ্যালফাবেটের প্রধান নির্বাহী সুন্দার পিচাই কর্মীদের উদ্দেশ্যে এক ঘোষণায় এই ‘জটিল খবর’ দিতে গিয়ে বলেন, কোম্পানির সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়, এমন বিভিন্ন পণ্যের কার্যক্রম বন্ধ করবে গুগল।

তিনি আরও বলেন, কোম্পানির অগ্রাধিকারের অনেকটাই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ভিত্তিক। ‘এআই’ নিয়ে কোম্পানির কাজ করার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিভিন্ন গুগল পণ্যকে ‘যে কোনো সময়ের চেয়ে ভালোভাবে’ তৈরি করতে সহায়তা করেছে। আর ব্যবহারকারী, নির্মাতা ও বিভিন্ন ব্যবসার জন্য ‘পুরোপুরি নতুন অভিজ্ঞতা শেয়ারের’ পরিকল্পনার কথাও বলেন তিনি।

প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানি মাইক্রোসফট থেকে ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের কিছুদিন পরই গুগলের এই পদক্ষেপ এলো।

ব্রিটিশ সংবাদপত্র ‘দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্টের’ প্রতিবেদন অনুযায়ী, অ্যালফাবেটের কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রভাব গিয়ে পড়বে কোম্পানির বিভিন্ন বিভাগে। এর মধ্যে কর্পোরেট ও নিয়োগ সংশ্লিষ্ট কার্যক্রমের পাশাপাশি কয়েকটি প্রকৌশল ও পণ্যভিত্তিক দলও আছে।

পিচাই স্বীকার করেন, গুগল নিজেদের কর্মশক্তি বাড়িয়েছে আর্থিক প্রবৃদ্ধির প্রত্যাশায়। তবে, সেটি আর বাস্তবায়িত হয়নি।

“ওই প্রবৃদ্ধির বাস্তবায়ন ও এর অগ্রগতির উদ্দেশ্যে, বর্তমান পরিস্থিতির চেয়ে ভিন্ন এক অর্থনৈতিক বাস্তবতার ভিত্তিতে নিয়োগ দিয়েছিলাম আমরা।”

“এর মানে দাঁড়ায়, আমাদের এমন কিছু প্রতিভাবান মানুষকে বিদায় জানাতে হবে, যাদের নিয়োগে আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি ও কাজ করে আনন্দ পেয়েছি।” --লিখেন পিচাই।

“এজন্য আমি গভীরভাবে দুঃখিত।”

এই পরিবর্তনের কারণে গুগল কর্মীদের জীবনে প্রভাব ফেলার পুরো দায়ভারও নিজের ওপর নেন পিচাই।

গুগল বলেছে, তারা ছাঁটাইকৃত কর্মীদের ‘সহায়তার’ বিভিন্ন উপায় খুঁজে দেখবে। এর মধ্যে থাকতে পারে ‘বিদায় প্যাকেজ’সহ স্বাস্থ্যসেবা, চাকরী ও অভিবাসনে সহায়তার মতো বিষয়গুলো।

ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের এরইমধ্যে ইমেইল পাঠিয়েছে অ্যালফাবেট। ওই বার্তা অনুযায়ী, স্থানীয় কর্মসংস্থানভিত্তিক আইন ও অনুশীলনের কারণে অন্যান্য দেশে এই প্রক্রিয়া বাস্তবায়নে তুলনামূলক দীর্ঘ সময় লাগতে পারে।

ইন্ডিপেন্ডেন্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, খবরটি এমন এক সময় এলো, যখন অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তার মধ্যেও গুগল ও মাইক্রোসফটের মতো কোম্পানি এআই খাতে বিনিয়োগ করে প্রযুক্তিগত প্রতিশ্রুতির আশ্বাস দিচ্ছে।

“আমাদের পরিকল্পনা শক্তি, পণ্য ও পরিষেবার মূল্যমানের পাশাপাশি এআই-তে প্রাথমিক বিনিয়োগের ফলে আসন্ন বিশাল সুযোগ নিয়ে আমি আত্মবিশ্বাসী।” - লিখেছেন পিচাই।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক