এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি ছবি বেচবে অ্যাডোবি স্টক

অ্যাডোবি মানুষের সৃজনশীলতাকে মেশিন লার্নিং প্রযুক্তি দিয়ে প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করছে না বলেও ব্লগ পোস্টে উল্লেখ করে দিয়েছে অ্যাডোবি স্টক।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Dec 2022, 11:51 AM
Updated : 6 Dec 2022, 11:51 AM

প্রথমসারির একাধিক প্ল্যাটফর্ম আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা এআই ব্যবহার করে তৈরি ছবির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলেও উল্টো পথে হাঁটছে সফটওয়্যার নির্মাতা অ্যাডোবির নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম ‘অ্যাডোবি স্টক’।

সোমবারের এক ব্লগ পোস্টে নিজস্ব সেবায় এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি ছবি অন্তর্ভূক্তির ঘোষণা দিয়েছে অ্যাডোবি সিস্টেমস ইনকর্পোরেটেড-এর নিয়ন্ত্রণাধীন প্ল্যাটফর্মটি। বিভিন্ন কাজে ব্যবহারের জন্য সৃজনশীল ছবি, ভিডিও, ইলাস্ট্রেশন আর থ্রিডি গ্রাফিক্সের ডেটাবেইজ আছে এতে।

গেটি ইমেজেসের মতো প্রথমসারির স্টক ছবি সরবরাহকারী প্ল্যাটফর্মগুলোর অনেকেই নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি ছবির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে। 

কিন্তু, স্টেবল ডিফিউশন এবং দাল-ই’র মতো এআই ব্যবহার করে তৈরি ছবি নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে সাদরে গ্রহণ করে নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে অ্যাডোবি স্টক। ব্যবহারকারীর লিখিত নির্দেশনার ভিত্তিতে অনলাইনের উন্মুক্ত তথ্য-উপাত্ত বিচার বিশ্লেষণ করে ছবি বানিয়ে দেয় এআইগুলো।

ব্লগ পোস্টে প্ল্যাটফর্মটির জ্যেষ্ঠ পরিচালক সারাহ ক্যাসিয়াস বলেছেন, “নিজের পোর্টফোলিওতে বৈচিত্র্য আনতে, সৃজনশীলতার পরিধি এবং আয়ের সুযোগ বাড়াতে এআই টুল এবং অন্যান্য প্রযুক্তি ব্যবহার করছেন আমাদের প্রদায়করা।”

সিনেট জানিয়েছে, অ্যাডোবি স্টক এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি শিল্পকর্ম নিজস্ব সেবায় নিলেও সে বিষয়টি অবশ্যই উল্লেখ করে দিতে হবে আপলোডকারীকে। 

সোমবারের ঘোষণার অনেক আগে থেকেই অনেকটা চুপিসারে এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি ছবি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছিল অ্যাডোবি। ফলাফল দেখে কোম্পানি ‘ইতিবাচক অর্থেই বিস্মিত হয়েছিল’ বলে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট অ্যাক্সিওসকে বলেছেন ক্যাসিয়াস।

“এটা আমাদের মানদণ্ডের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে পারছে এবং বেশ ভালো পারফর্ম করছে,” যোগ করেন তিনি। 

অন্যদিকে, কপিরাইট নিয়ে আইনি জটিলতার শঙ্কায় সেপ্টেম্বর মাসেই নিজস্ব সেবায় এআইয়ের মাধ্যমে তৈরি ছবি না রাখার ঘোষণা দিয়েছে গেটি ইমেজেস।

কিন্তু এমন জটিলতা এড়াতে অ্যাডোবি নিজস্ব নীতিমালায় নতুন শর্ত যোগ করেছে বলে জানিয়েছে সিনেট। অ্যাডোবির সেবায় ছবি জমা দেওয়ার আগে তার মালিকানা নিজের বলে নিশ্চিত করতে হবে প্রদায়ককে। এক্ষেত্রে ছবি তৈরিতে ব্যবহৃত এআই টুলের নীতিমালা ও শর্ত যেন অ্যাডোবি স্টকের নীতিমালা বা ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সাংঘর্ষিক না হয়, সে বিষয়টিও নিশ্চিত করতে হবে প্রদায়ককে। 

ছবিতে কোনো লোগো, জনপ্রিয় চরিত্র, বাস্তব পৃথিবীর কোনো জায়গা বা উল্লেখযোগ্য কোনো মানুষও থাকতে পারবে না। এই শর্তগুলো মানলে নিজস্ব শিল্পকর্ম থেকে অ্যাডোবির প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কামাই করতে পারবেন প্রদায়করা। 

অ্যাডোবি মানুষের সৃজনশীলতাকে মেশিন লার্নিং প্রযুক্তি দিয়ে প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করছে না বলেও ব্লগ পোস্টে উল্লেখ করে দিয়েছে অ্যাডোবি স্টক: বরং এআইকে ‘সৃজনশীলতার পরিধির বৃদ্ধির টুল হিসেবে বর্ণনা করেছে কোম্পানিটি। 

এআই ছবির অন্তর্ভূক্তি ‘সৃজনশীল প্রক্রিয়ার গতি বাড়াবে’ এবং সেবাগ্রাহক ও প্রদায়ক উভয়েই লাভবান হবে বলে আশা করছে প্ল্যাটফর্মটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক