‘স্মার্ট স্কার্ফ’ দিয়ে ভক্তদের অনুভূতি জানতে চায় ম্যানচেস্টার সিটি

স্মার্ট স্কার্ফের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ হলে কীভাবে ব্যবহারকারীদের গোপনতা রক্ষা করা হবে এবং অংশীদারদের সঙ্গে কোন কোন ডেটা শেয়ার করা হবে, সে বিষয়ে কিছু বলেনি ম্যানচেস্টার সিটি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 July 2022, 01:18 PM
Updated : 29 July 2022, 01:18 PM

খেলা চলাকালে সমর্থকরা আসলেই কেমন অনুভব করেন তা জানতে চায় ইংল্যান্ডের ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি।

তাই, ‘দ্য কানেকটেড স্কার্ফ’ নামে একটি স্মার্ট স্কার্ফ নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়ন দলটি।

ম্যানচেস্টার সিটি বলছে, ‘সমর্থকদের আবেগ’ মাপা যাবে এই স্কার্ফে থাকা সেন্সরের মাধ্যমে। ক্লাবটি নিজেদের পেইজে জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ছয়জন সমর্থকের ওপর এটি নিয়ে পরীক্ষা চালিয়েছে তারা। ৯০ মিনিটের একটি ম্যাচের ১২০টি মুহূর্তের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে এর মাধ্যমে।

“এ স্কার্ফ হৃদ-স্পন্দন, শরীরের তাপমাত্রা এবং মানসিক উত্তেজনার মত বিষয়গুলোর তথ্য সংগ্রহ করে ম্যাচের বিভিন্ন মুহূর্তে ভক্তদের কী অনুভূতি হচ্ছে সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য দেয়,” লিখেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

স্মার্ট স্কার্ফ থেকে সংগ্রহ করা ডেটা ব্যবহার করে ‘কিউরেটেড ও কাস্টমাইজ করা’ অভিজ্ঞতা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে ক্লাবটি। তবে, এই অভিজ্ঞতাগুলো কী বা কেমন হবে তা তারা ব্যাখ্যা করেনি।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট আর্স টেকনিকা বলছে, ম্যানচেস্টার সিটির স্কার্ফে ব্যবহৃত হয়েছে ইমোটিবিটের সেন্সর মডিউল। এছাড়া ফিটনেস ট্র্যাকারে থাকে এমন বেশ কয়েকটি সেন্সর আছে এতে। এর মধ্যে রয়েছে শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপের সেন্সর, ‘ফটোপ্লেথিসমোগ্রাফি (পিপিজি)’ সেন্সর এবং অ্যাক্সেলেরোমিটার।

এছাড়া ‘ইলেকট্রোডার্মাল অ্যাক্টিভিটি (ইডিএ)’ সেন্সর আছে স্মার্ট স্কার্ফে, যা ‘ঘামের মাত্রায় পরিবর্তন’ পরিমাপ করে ব্যবহারকারীর মানসিক চাপ চিহ্নিত করতে পারে। ‘ফিটবিট সেন্স’ স্মার্টওয়াচেও আছে ওই একই সেন্সর।

আর্স টেকনিকা বলছে, অন্যান্য ফিটনেস ডিভাইসে একই ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহৃত হলেও, ‘দ্য কানেকটেড স্কার্ফ’-এর বিষয়টি কিছুটা আলাদা। কারণ, এর সংগ্রহ করা ডেটা ব্যবহারকারীর জন্য নয়, বরং এই স্কার্ফের একমাত্র সুবিধাভোগী হবে সমর্থকের পছন্দের ফুটবল ক্লাব এবং মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান সিসকো; স্মার্ট স্কার্ফ প্রকল্পের অংশীদার এই কোম্পানিটি।

তবে, এই স্মার্ট স্কার্ফের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ হলে কীভাবে ব্যবহারকারীদের গোপনতা রক্ষা করা হবে এবং প্রকল্পের অংশীদারদের সঙ্গে কোন কোন ডেটা শেয়ার করা হবে, সে বিষয়ে কিছু বলেনি ম্যানচেস্টার সিটি।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, সামনের সিজনে ম্যানচেস্টার সিটি ও ‘নিউ ইয়র্ক সিটি এফসি’র নির্দিষ্ট সংখ্যক ভক্তদের ‘দ্য কানেকটেড স্কার্ফ’ ব্যবহার করতে দেবে ফুটবল ক্লাবটি।

পরীক্ষামূলক পণ্যটি নিয়ে আর কোনো তথ্য দেয়নি ম্যানচেস্টার সিটি। স্কার্ফগুলো কী ভাবে বিতরণ করা হবে বা এর বিদ্যুৎ চাহিদা মিটবে কী ভাবে, সে প্রসঙ্গে মুখ খোলেনি ক্লাবটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক