অ্যাপলের সমালোচনায় মাস্কের সঙ্গী জাকারবার্গ

মেটার বিজ্ঞাপনী আয় হ্রাস আর শেয়ার বাজারে দরপতনের জন্য বিভিন্ন সময় পরোক্ষভাবে অ্যাপলকেই দায়ী করেছেন জাকারবার্গ।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Dec 2022, 09:47 AM
Updated : 2 Dec 2022, 09:47 AM

দিন দুয়েক আগেই নানা অভিযোগে অ্যাপলের বিরুদ্ধে লাগাতার টুইট করে প্রযুক্তি বাজারে আলোড়ন তুলেছিলেন ‘চিফ টুইট’; অ্যাপল বিরোধী সে ‘আক্রমণে’ ইলন মাস্কের সঙ্গী হয়েছেন আরেক সোশাল মিডিয়া ফেইসবুকের কাণ্ডারী মার্ক জাকারবার্গ।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য ইনডিপেনডেন্ট এক প্রতিবেদনে লিখেছে, অ্যাপলের নিজস্ব অ্যাপ স্টোরের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নিয়ে সমালোচনায় যোগ দিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগও তুলেছেন জাকারবার্গ।

‘টুইটারাস্ত্র’ ব্যবহারের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই অ্যাপলের সঙ্গে ‘ভুল বোঝাবুঝির সমাধান হয়েছে’ বলে টুইট করেছেন মাস্ক। তার আগে পুরো সপ্তাহ জুড়ে আইফোন নির্মাতার সমালোচনায় মুখর ছিলেন টুইটারের নতুন মালিক।

৩০ নভেম্বর নিউ ইয়র্ক টাইমসের উদ্যোগে আয়োজিত এক সম্মেলনে যোগ দিয়ে মাস্কের সুরেই কথা বলেন জাকারবার্গ। 

২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অ্যাপলের বিরুদ্ধে মাস্কের অভিযোগ ছিল বহুমাত্রিক। চিফ টুইটের মূল অভিযোগগুলো ছিল, আইফোন অ্যাপে ডিজিটাল লেনদেনের ফি ‘অতিরিক্ত বেশি’, টুইটারে বিজ্ঞাপন দেওয়া কার্যত বন্ধ করে দিয়েছে অ্যাপল এবং নিজস্ব অ্যাপ স্টোর থেকে টুইটার অ্যাপ মুছে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে টিম কুকের নেতৃত্বাধীন ওই কোম্পানি।

মাস্কের সঙ্গে সুর মিলিয়ে জাকারবার্গ বলেছেন, ‘নিজস্ব প্ল্যাটফর্মের ওপর নিয়ন্ত্রণ’ আইফোন নির্মাতাকে নিজের স্বার্থসিদ্ধির সুযোগ করে দিয়েছে।

জাকারবার্গের মতে, কোম্পানিগুলোকে প্রতিযোগীদের নিয়ন্ত্রিত প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে নিজস্ব অ্যাপ সরবরাহে বাধ্য হতে হচ্ছে – সেখানেই তৈরি হচ্ছে স্বার্থের সংঘাত।

“কোন অ্যাপগুলো ডিভাইস পর্যন্ত যাবে তা একতরফাভাবে নিয়ন্ত্রিক হচ্ছে এবং একে টেকসই বা ভালো কোনো ব্যবস্থা বলে মনে করি না আমি।”

এক্ষেত্রে মাইক্রোসফট ও গুগলের অপারেটিং সিস্টেমের উদাহরণ টেনেছেন জাকারবার্গ। নিজস্ব অ্যাপস্টোরের বাইরে থেকেও ডিভাইসে অ্যাপ ইনস্টল করার সুযোগ আছে ওই অপারেটিং সিস্টেমগুলোতে।

বরাবরই নিজস্ব অ্যাপ স্টোরের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার পক্ষে কথা বলেছে অ্যাপল। অ্যাপের ডিজিটাল লেনদেন থেকে নেওয়া ফি কনটেন্ট মডারেশনের কাজে খরচ করার দাবি করে আসছে তারা।

অ্যাপল বলছে, অনিরাপদ এবং ত্রুটিপূর্ণ অ্যাপ নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম থেকে দূরে রাখতে তারা সফল। এক্ষেত্রে নিজস্ব অ্যাপ স্টোরের বাইরের অ্যাপ ‘সাইডলোড’ করার সুযোগ দিলে প্ল্যাটফর্মের নিরাপত্তায় দুর্বলতা তৈরি হবে।

ইনডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, নিউ ইয়র্ক টাইমসের আয়োজিত ‘ডেডলক’ সম্মেলনে অ্যাপলের সমালোচনা করার সময় সরাসরি অ্যাপল বা মাস্কের নাম উচ্চারণ করেননি জাকারবার্গ। আর কনটেন্ট মডারেশন প্রসঙ্গে মাস্কের মতামতের সঙ্গে কিছুটা হলেও দূরত্ব রেখেছেন।

এ বিষয়ে জাকারবার্গের মত, “আমি মনে করি শিল্পখাত আরও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে যখন মানুষ ভিন্ন ভিন্ন পথ বেছে নেয়।”

মাস্ক নিজে একটি সামাজিক মাধ্যম প্ল্যাটফর্মের মালিক বলে জাকারবার্গ তার পক্ষ নিচ্ছেন– বাস্তবতা এমন নয়। অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর নীতিমালা পরিবর্তনে বড় ধাক্কা লেগেছে জাকারবার্গের মেটা প্ল্যাটফর্মস ইনকর্পোরেটেড-এর বিজ্ঞাপনী আয়ে।

২০২১ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিক শেষে এক লাখ কোটি ডলার বাজার মূল্যের মাইলফলক ছুঁয়েছিল মেটা তথা তৎকালীন ফেইসবুক। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতে মেটার বাজার মূল্য নেমে এসেছে ৩২ হাজার কোটি ডলারের ঘরে। আর মেটার এই দরপতনের জন্য বিভিন্ন সময়ে পরোক্ষভাবে অ্যাপলকেই দায়ী করেছেন জাকারবার্গ।  

অন্যদিকে অভিযোগের ফুলঝুরি ছড়ানোর দুদিনের মাথায় অ্যাপলের সঙ্গে সমঝোতা করে নিয়েছেন মাস্ক। অ্যাপল কার্যালয়ে প্রধান নির্বাহী টিম কুকের সঙ্গে দেখা করে টুইট করেছেন, অ্যাপল সঙ্গে যা ছিল, তার সবই ছিল ‘ভুল বোঝাবুঝি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক