একুয়েডরের খেলোয়াড় নিয়ে ফিফার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল চিলির

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে এক খেলোয়াড়ের জন্মস্থান ও তারিখ নিয়ে একুয়েডর জালিয়াতি করেছে বলে অভিযোগ চিলির।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 July 2022, 05:55 PM
Updated : 28 July 2022, 05:55 PM

কিছুতেই যেন হাল ছাড়ছে না চিলি। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে একুয়েডরের বিরুদ্ধে অযোগ্য খেলোয়াড় খেলানোর তাদের যে অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছিল ফিফা, সেটির বিরুদ্ধে পুনরায় আপিল করেছে চিলির ফুটবল ফেডারেশন।

চিলিয়ান ফুটবল ফেডারেশন গত মে মাসে দাবি করে, একুয়েডর ডিফেন্ডার বায়রন কাস্তিয়োর জন্ম ১৯৯৫ সালে, কলম্বিয়ার টুমাকোয়। কিন্তু একুয়েডর তাদের নথিতে উল্লেখ করেছে, ১৯৯৮ সালে একুয়েডরের শহর প্লায়াসে জন্ম তার।

একুয়েডরের ক্লাব বার্সেলোনা এসসির ডিফেন্ডার কাস্তিয়ো ভুয়া পাসপোর্ট ও জন্মসনদ ব্যবহার করে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আটটি ম্যাচ খেলেছেন বলে দাবি করে চিলি।

চিলির অভিযোগ সত্য প্রমাণ হলে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা হারাতে হতো একুয়েডরকে। তবে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের দাখিল করা তথ্যউপাত্ত বিশ্লেষণের পর গত ১০ জুন একুয়েডর ফুটবল ফেডারেশনের বিরুদ্ধে তদন্ত বন্ধের সিদ্ধান্ত জানায় ফিফা।

এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ফিফা আপিল কমিটির কাছে পুনরায় আবেদন করার সুযোগ ছিল চিলির সামনে। সেই আবেদন করার কথা বৃহস্পতিবার জানায় চিলি। বিবৃতিতে দেশটির ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হোর্হে ইয়োনগে নিজেদের অভিযোগকে সত্য বলে জোর দাবি করেন।

“আমাদের তদন্তের ফলাফল সম্পর্কে আমরা পুরোপুরি নিশ্চিত। এটা পুরোপুরি পরিষ্কার যে, খেলোয়াড়টি ভুয়া একুয়েডরিয়ান নথি ব্যবহার করেছে। এখানে ২০২২ বিশ্বকাপে জায়াগা পাওয়াটাই যে কেবল ঝুঁকিতে রয়েছে তা নয়, খেলার সততা নিয়েও প্রশ্ন থাকছে।”

চিলি ১৯ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে থেকে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই শেষ করেছিল। চতুর্থ স্থানে থেকে কাতার বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করে একুয়েডর। পঞ্চম স্থানে থেকে বাছাই শেষ করা পেরু প্লে-অফে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হেরে চূড়ান্ত পর্বে উঠতে ব্যর্থ হয়।

বাছাইয়ে ২৬ পয়েন্ট পায় একুয়েডর। কাস্তিয়োর খেলা ৮ ম্যাচ থেকে তারা পায় ১৪ পয়েন্ট। এই পয়েন্টগুলো হারালে কাতার বিশ্বকাপে খেলা হতো না দলটির।

আগামী ২১ নভেম্বর শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপে কাতার, নেদারল্যান্ডস ও সেনেগালের সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে একুয়েডর। আসরের উদ্বোধনী দিনে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হবে তারা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক