আগুয়েরোর শেষ দিকের গোলে নকআউট পর্বে সিটি

লিওঁর কাছে হেরে যাত্রা শুরুর পর মিলেছিল টানা তিনটি জয়। কিন্তু ফিরতি লেগে ফরাসি ক্লাবটির কাছে ফের হারতে বসেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। তবে দুবার পিছিয়ে পড়েও দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে মূল্যবান এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পেপ গুয়ার্দিওলার দল। সঙ্গে মিলেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বের টিকেট। 

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Nov 2018, 10:34 PM
Updated : 27 Nov 2018, 11:51 PM

লিওঁর মাঠে মঙ্গলবার রাতে ‘এফ’ গ্রুপের ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়।

লিওঁর পক্ষে জোড়া গোল করেন মাক্সওয়েল। আর প্রথমবার এমেরিক লাপোর্তের গোলে সমতায় ফেরার পর শেষ দিকে সের্হিও আগুয়েরোর গোলে ড্রয়ে মাঠ ছাড়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা।   

প্রথমার্ধে অনেকগুলা সুযোগ নষ্ট করা লিওঁ দ্বিতীয়ার্ধের দশম মিনিটে গোলের দেখা পায়। সতীর্থের ছোট পাস পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের জোরালো উঁচু শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন মাক্সওয়েল।

৬২তম মিনিটে সেটপিসে গোল করে সমতায় ফেরে সিটি। ডান দিক থেকে রাহিম স্টার্লিংয়ের ফ্রি-কিকে দাভিদ সিলভার হেডে বাড়ানো বল আবারও হেড করে জালে পাঠান ফরাসি ডিফেন্ডার লাপোর্ত। চলতি মৌসুমে এটা তার তৃতীয় গোল।

৮১তম মিনিটে আবারও এগিয়ে যায় প্রথম লেগে সিটির মাঠে ২-১ গোলে জেতা লিওঁ। সতীর্থের পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারকে কোনো সুযোগ না দিয়ে বাঁ পায়ের শটে দ্বিতীয় গোলটি করেন কোত দি ভোয়ার ফরোয়ার্ড মাক্সওয়েল।

এবার তাদের এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ দুই মিনিটও স্থায়ী হয়নি। ৮৩তম মিনিটে রিয়াদ মাহরেজের কর্নারে হেডে দূরের পোস্ট দিয়ে বল ঠিকানায় পাঠান আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার আগুয়েরো।

পাঁচ ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ম্যানচেস্টার সিটির পয়েন্ট ১০। ৩ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে লিওঁ।

গ্রুপের আরেক ম্যাচে জার্মান ক্লাব হফেনহাইমের মাঠে ৩-২ গোলে জেতা ইউক্রেনের শাখতার দোনেৎস্ক ৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে। হফেনহাইমের পয়েন্ট ৩।

‘ই’ গ্রুপ থেকে সেরা ষোলো নিশ্চিত হয়ে গেছে বায়ার্ন মিউনিখ ও আয়াক্সের। মঙ্গলবার আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় আরিয়েন রবেন ও রবের্ত লেভানদফস্কির জোড়া গোলে ৫-১ ব্যবধানে বেনফিকাকে হারানো বায়ার্ন ১৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। এইকে অ্যাথেন্সের মাঠ থেকে ২-০ গোলের জয় নিয়ে ফেরা আয়াক্স ১১ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। 

তৃতীয় স্থানে থাকা পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকার পয়েন্ট ৪।

গ্যারেথ বেল ও লুকাস ভাসকেসের গোলে রোমাকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে ‘জি’ গ্রুপের সেরা হয়ে নকআউট পর্বে উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের পয়েন্ট ১২। ৩ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে ইতালিয়ান ক্লাবটি।

সিএসকেএ মস্কোর মাঠে ২-১ গোলে জেতা ভিকোরিয়া প্লজেন ৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে। সমান পয়েন্ট নিয়ে মুখোমুখি লড়াইয়ে পিছিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে সিএসকেএ মস্কো।

‘এইচ’ গ্রুপে মারিও মানজুকিচের একমাত্র গোলে ভালেন্সিয়াকে হারিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা ইউভেন্তসের পয়েন্ট ১২।

আর মারোয়ান ফেলাইনির যোগ করা সময়ের একমাত্র গোলে ইয়াং বয়েজকে হারিয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ১০ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে স্পেনের ক্লাব ভালেন্সিয়া।  

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক