দলে তাড়না ও লড়াকু মনোভাবের ঘাটতি দেখছেন ইউনাইটেড কোচ

ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে সুযোগ হাতছাড়া করার হতাশায় পুড়ছেন এরিক টেন হাগ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 March 2024, 11:41 AM
Updated : 31 March 2024, 11:41 AM

শক্তি-সামর্থ্য, নামে ও ভারে অনেকটা এগিয়ে থাকলেও ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মাঠের খেলায় সেই ছাপ ছিল না একদমই। ম্যাচ জুড়ে প্রতিপক্ষের চাপে নাজেহাল দলের পারফরম্যান্সে বেশ হতাশ কোচ এরিক টেন হাগ। এর জন্য খেলোয়াড়দের মাঝে তাড়না ও লড়াকু মনোভাবের ঘাটতিকেই বড় কারণ হিসেবে দেখছেন তিনি। 

পয়েন্ট টেবিলের নিচের দিকের দল ব্রেন্টফোর্ডের একের পর এক আক্রমণে কোণঠাসা হয়ে থাকলেও শেষ দিকে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েছিল ইউনাইটেড। অবশ্য কিছুক্ষণের মধ্যে গোল হজম করে তারা। শেষ পর্যন্ত প্রিমিয়ার লিগের শনিবার রাতের ম্যাচটি শেষ হয় ১-১ সমতায়। 

টেন হাগ অবশ্য এই ফলে মোটেও সন্তুষ্ট নন। কারণ ‘খারাপ’ খেললেও জয়ের সুযোগ ছিল তাদের। কিন্তু সেটাও যে হাতছাড়া করে তার দল।

গোলশূন্য ড্রয়ে ৯০ মিনিট শেষ হওয়ার পর ম্যাচে নাটকীয় মোড় নেয় যোগ করা সময়ে। খেলার ধারার বিপরীতে আচমকা এক আক্রমণে ৯৬ মিনিটে ম্যাসন মাউন্টের গোলে এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। দুই মিনিট পরই সমতা টানেন ব্রেন্টফোর্ডের ক্রিস্টোফার আইয়ের। 

শেষের কয়েক মিনিট ব্যবধান ধরে রাখতে না পারায় ভীষণ হতাশ টেগ হাগ। 

“জয় আমাদের প্রাপ্য ছিল না। তবে জয়ের পথে থাকলে সেই সুযোগ কাজে লাগানো উচিত। এই ধরনের পরিস্থিতিতে সাধারণত আমরা বেশ ভালো খেলি।” 

“ম্যাচ জুড়ে আমরা দৃঢ়তা দেখিয়েছি তবে আক্রমণাত্মক খেলার কথা বললে, ব্রেন্টফোর্ড আমাদের চেয়ে ভালো ছিল। ম্যাচে বেশ কিছু মুহূর্তে আমাদের আরও আবেগ ও তাড়না দেখানো উচিত। আমার সবচেয়ে বড় হতাশা এটাই যে, আমরা জিততে পারিনি। তাড়না ছিল, প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল, কিন্তু সেটা যথেষ্ট ছিল না।”

ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে ড্রয়ে আগামী মৌসুমে ইউনাইটেডের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার স্বপ্নে লেগেছে বড় ধাক্কা। ২৯ ম্যাচে ১৫ জয় ও তিন ড্রয়ে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে তারা। সমান ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে টটেনহ্যাম হটস্পার। আর ৩০ ম্যাচে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে অ্যাস্টন ভিলা। 

তবে এখনই ইউরোপ সেরার মঞ্চে খেলার আশা ছাড়ছেন না টেন হাগ। 

“এখনও অনেক ম্যাচ বাকি আছে। মৌসুম শেষে পয়েন্টের দিকে ভালো অবস্থায় থাকতে পারি।”